BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

প্রেমের প্রস্তাবে না, প্রতিশোধ নিতে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 29, 2018 3:26 pm|    Updated: November 29, 2018 3:26 pm

Girl's Body recover in Jalpaiguri

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: হাত বাঁধা অবস্থায় জঙ্গল থেকে উদ্ধার কলেজ ছাত্রীর মৃতদেহ৷ বৃহস্পতিবার সকালে দেহটি উদ্ধার করা হয়৷ পরিজনদের দাবি, ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে ওই ছাত্রীকে৷ গোটা ঘটনার নেপথ্যে এলাকারই এক যুবকের যোগসাজশ রয়েছে বলেও অভিযোগ তাঁদের৷ এই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই উত্তেজনা ছড়াল জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ির ভোটপট্টিতে৷ যদিও ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে মুখ খুলতে নারাজ তদন্তকারীরা৷

[ভরা বাজারে গুলি ছুঁড়ল মত্ত যুবক, গণধোলাই স্থানীয়দের]

ময়নাগুড়ির ভোটপট্টিতে ছোট থেকেই বাস ওই কলেজছাত্রীর৷ স্কুলের গণ্ডি পেরিয়ে সদ্যই কলেজে ঢুকেছিল৷ এলাকায় সুনাম ছিল ছাত্রীর৷ প্রতিবেশীরাও বেশ পছন্দ করত তাকে৷ বুধবার রাত থেকে পাওয়া যাচ্ছিল না ছাত্রীকে৷ বৃহস্পতিবার সকালে তখনও কিশোরীর নিরুদ্দেশ হয়ে যাওয়ার কথা গোটা এলাকায় রটেনি৷ এদিকে, ভোরেই এক মহিলা বাঁশবাগানের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন৷ ওই মহিলা দেখেন বাঁশবাগানে কেউ পড়ে রয়েছেন৷ তিনি জানান, ‘‘প্রথমে ভেবেছিলাম কোনও মদ্যপ ব্যক্তি নেশার ঘোরে হয়তো বাঁশবাগানে শুয়ে রয়েছেন৷ তারপর এগিয়ে গিয়ে দেখলাম পড়ে রয়েছে ওই কিশোরী৷’’ মহিলার চিৎকারে জড়ো হয়ে যান অন্যান্যরা৷ তাঁরা দেখেন, হাত বাঁধা অবস্থায় পড়ে রয়েছে নিখোঁজ কলেজ ছাত্রী৷ শুধু তাই নয়, শরীরে একাধিক আঘাতের চিহ্নও মিলেছে তার৷ তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে৷ চিকিৎসকেরা জানান, ততক্ষণে মারা গিয়েছে ছাত্রীটি৷

[নদী পার হয়ে গুলবারের চোলাই ঠেকে আসত গরিবের ‘গরল’]

খবর দেওয়া হয় ময়নাগুড়ি থানায়৷ পুলিশ কিশোরীর দেহ জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে৷ শরীরের ক্ষতচিহ্ন দেখে পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, ধর্ষণ করেই খুন করা হয়েছে তাকে৷ কিশোরীর পরিজনদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরেই এক যুবক তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিত৷ তাতে রাজি ছিল না কিশোরী৷ বুধবার মোবাইলে কথাও বলে দুজনে৷ ওই যুবকই তাঁদের মেয়েকে ধর্ষণ করে খুন করেছে বলেই অভিযোগ কিশোরীর পরিবারের৷ পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে৷ ময়নাগুড়ি থানার আইসি তমাল দাস জানান, ইতিমধ্যেই কিশোরীর পরিজন এবং প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা বলেছে পুলিশ৷ তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে না পাওয়া পর্যন্ত মৃত্যুর কারণ স্পষ্টভাবে বলতে পারছেন না আধিকারিকরা৷ ওই রিপোর্ট হাতে আসার অপেক্ষাতেই রয়েছেন তদন্তকারীরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে