২৮ কার্তিক  ১৪২৬  শুক্রবার ১৫ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৮ কার্তিক  ১৪২৬  শুক্রবার ১৫ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: একদিন আগে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্য সরকারের সমালোচনা করেছেন রাজ্যপাল। আর শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা শোনা গেল জগদীপ ধনকড়ের মুখে। জানালেন, মুখ্যমন্ত্রীকে দেখে অনুপ্রাণিত হচ্ছেন মেয়েরা।

রাজভবন বনাম নবান্নের সংঘাত চলেছে বেশ কয়েকদিন ধরেই। বিভিন্ন ঘটনা প্রসঙ্গে রাজ্যপাল সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। রাজ্যের মন্ত্রীরাও রাজ্যপালের বক্তব্যের পালটা জবাব দিয়েছেন। সবশেষ ঘটনা বৃহস্পতিবারের। কেন্দ্রের আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প নিয়ে রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করে রাজ্যপাল বলেছিলেন, “এখানে সবকিছু নিয়ে রাজনীতি হয়। স্বাস্থ্য নিয়ে রাজনীতি করা উচিত নয়।” এ প্রসঙ্গেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেছিলেন, “রাজ্যপালের বিষয় নিয়ে আমি কিছু বলব না। উনি বিজেপির লোক।” এই আবহের মধ্যে শুক্রবার মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা করলেন রাজ্যপাল। তিনি বললেন, “মুখ্যমন্ত্রী একজন মহিলা, তাই তাঁকে দেখে অনুপ্রাণিত হচ্ছেন রাজ্যের মহিলারা। আর তাই তাঁরা সাফল্য পাচ্ছেন।”

[আরও পড়ুন: সাফ রাম মন্দির তৈরির রাস্তা, বিতর্কিত জমির দখল পেল রাম জন্মভূমি ন্যাস]

এদিন সস্ত্রীক রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় বানতলার একটি অনুষ্ঠানে আসেন। সেখানে তিনি স্নাতকোত্তর কৃতী ছাত্র-ছাত্রীদের হাতে শংসাপত্র ও মেডেল তুলে দেন। অনুষ্ঠানে রাজ্যপাল বলেন, “যুবসমাজই জাতির ভবিষ্যৎ। এখানে এসে দেখতে পেলাম, পরীক্ষায় মেয়েরা অনেক ভাল ফল করেছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যেহেতু মহিলা, তাই তাঁকে দেখে মেয়েরা আজ অনুপ্রাণিত হচ্ছে। আমিও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে সম্মান জানাই।” ছাত্রছাত্রীদের সাফল্য কামনা করেন তিনি। রাজ্যপাল বলেন, “যুবসমাজ দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। আগামিদিনে তোমরাই দেশের এক-একটি ক্ষেত্রে সেরা হবে। প্রথাগত জিনিসের বাইরে গিয়ে নতুন কিছু চিন্তা করবে। ছোট ছোট জায়গা থেকে মানুষ বড় জায়গায় পৌঁছে যায়। তোমরা কাজ খোঁজার চেষ্টা না করে, কাজ তৈরির চেষ্টা করবে। আমি আশাবাদী, তোমরা দেশের অর্থনীতিকে আরও বেশি চাঙ্গা করবে।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং