২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৫ কার্তিক  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

গৌতম ব্রহ্ম: ট্রাক দেখলেই মাথার ভিতর হর্ন বাজত। পা খুঁজত অ্যাকসিলারেটর। চুল ছিঁড়েও কারণ বের করতে পারেননি লোকনাথ শ্রীনিবাস। কী যে হয়েছে। সারাক্ষণ মাথার ভিতর দপদপ করে। আর হর্ন বাজে। কোথায় থাকতেন, কী করতেন, কিচ্ছু মনে নেই। স্মৃতিভ্রংশ হয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াতেন লোকনাথ। অবশেষে শাপমুক্তি। হ্যাম রেডিও অপারেটরদের নাছোড়বান্দা মনোভাব খুঁজে বের করেছে লোকনাথের ঠিকানা। খুঁজে বের করেছে তাঁর বাবা-মা-দাদা-বোনকে। 

[আরও পড়ুন: মারধরের জেরে লকআপে বন্দি মৃত্যুর অভিযোগ, প্রতিবাদে পুলিশ ফাঁড়িতে আগুন]

ভাষার ব্যবধান ঘুচিয়ে কাজটা সহজ ছিল না। আসলে তামিল ছাড়া আর কিছুই জানেন না লোকনাথ। লোকনাথের বক্তব্য রেকর্ড করে সেই অডিও ক্লিপ নিজেদের নেটওয়ার্কে শেয়ার করেছিলেন ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল রেডিও ক্লাব’-এর সাধারণ সম্পাদক অম্বরীশ নাগ বিশ্বাস। এক তামিল হ্যাম রেডিও অপারেটর সেই অডিও তর্জমা করেন। তারপরই ফাঁস হয় লোকনাথ রহস্য। অম্বরীশ জানালেন, লোকনাথ ট্র‌াক ড্রাইভার। তামিলনাড়ুর চিতলাতক্কম থানা এলাকায় বাড়ি। ট্রাক নিয়ে এ রাজ্যে এসেছিলেন। এক অচেনা ব্যক্তিকে ‘লিফট’ দিতে গিয়েই বিপত্তি। মাথার পিছনে আঘাত করে লোকনাথকে অচৈতন্য করে রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হয়। লোপ পায় স্মৃতিশক্তি। এরপর এই দোকান সেই দোকান ঘুরে মানুষের কাছে চেয়েচিন্তে কোনওক্রমে পেট ভরাচ্ছিলেন তামিল যুবকটি। পরে স্মৃতিশক্তি কিছুটা ফিরলেও কোনও লাভ হচ্ছিল না। লোকনাথের কথা কেউই বুঝতে পারছিলেন না।

হ্যাম অপারেটররাই আবিষ্কার করেন, লোকনাথ আদতে তামিল। এরপর লোকনাথের বাড়ির সঙ্গে যোগাযোগ করেন অম্বরীশরা। বাবা-মায়ের ছবি দেখানো হয় লোকনাথকে। ছবি দেখে জলে ভরে যায় চোখ। লোকনাথ এখন হাবড়া হাসপাতালে ভর্তি। জেলাশাসকের সঙ্গে কথা বলে লোকনাথের মেডিক্যাল চেক আপের ব্যবস্থা করা হয়েছে। আজ হাসপাতালে লোকনাথের পরিবারের সদস্যদের আসার কথা। এখন পরিবারের অপেক্ষায় লোকনাথ। 

[আরও পড়ুন:মানবিকতার নজির, বাস থামিয়ে সহযাত্রীর কাটা আঙুলে অস্ত্রোপচার চিকিৎসকের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং