৩০ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

বাবুল হক, মালদহ: পুলিশ ফাঁড়িতে মারধরের জেরে প্রৌঢ়ের মৃত্যুর ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মালদহের ইংরেজবাজার থানার মিল্কি ফাঁড়িতে। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই ফাঁড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি আগুন লাগিয়ে দেয় মৃতের পরিবার ও স্থানীয়রা। প্রাণ বাঁচাতে ফাঁড়ি ছেড়ে পালায় পুলিশ কর্মীরা। পরে ইংরেজবাজার থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনে। তবে এদিনের ঘটনায় আহত হয়েছেন একাধিক পুলিশ কর্মী।

[আরও পড়ুন: অজানা জ্বরের প্রকোপ নদিয়ার সীমান্ত গ্রামে, চিকিৎসা নিয়ে তৎপর প্রশাসন]

জানা গিয়েছে, লক্ষ্মীপুজো উপলক্ষে রবিবার গভীর রাতে মালদহের মিল্কি ফাঁড়ি এলাকায় জুয়ার আসর বসেছিল। খবর পেয়ে সেখানে যায় মিল্কি ফাঁড়ির পুলিশ। পুলিশ ও সিভিক ভলান্টিয়রদের দেখেই পালানোর চেষ্টা করে আইনুল হক নামে ওই প্রৌঢ়। কোনওক্রমে ওই প্রৌঢ়কে ধরে ফেলে তাঁরা। অভিযোগ, সেখানেই মারধর করা হয় আইনুলকে। এরপর তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় মিল্কি ফাঁড়িতে। অভিযোগ, লকআপে রেখে বেধড়ক মারধর করা হয়। মারধরের জেরে ফাঁড়িতেই মৃত্যু হয় ওই প্রৌঢে়র। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। মিল্কি ফাঁড়িতে চড়াও হয় মৃত ব্যক্তির আত্মীয় ও প্রতিবেশীরা। ফাঁড়িতে ব্যাপক ভাঙচুরের পর আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। আহত হন পুলিশ কর্মীরা। প্রাণ বাঁচাতে ফাঁড়ি থেকে চম্পট দেন পুলিশ কর্মী ও সিভিক ভলান্টিয়ররা। এরপর পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ঘটনাস্থলে যায় ইংরেজবাজার থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।

fire-2
মৃত আইনুল হক

ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গেলেও এখনও থমথমে এলাকা। ফের যাতে এলাকা উত্তপ্ত হয়ে উঠতে না পারে সেই কারণে এলাকায় বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেট। তবে মৃতের পরিবারের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেই দাবি করেছে পুলিশ। তাঁদের দাবি, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ওই ব্যক্তির। তবে পুলিশ লক আপে প্রৌঢ়ের মৃত্যুর পিছনে আসল কারণ কী তা জানা যাবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে আসার পরেই।

[আরও পড়ুন: টিভিতে মগ্ন চিকিৎসক! বিনা চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুতে উত্তেজনা কালনা হাসপাতালে]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং