BREAKING NEWS

৩১ আশ্বিন  ১৪২৮  সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘মার খেলেও লড়বে ঐশী’, প্রত্যয়ী অশীতিপর দিদিমা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: January 6, 2020 1:12 pm|    Updated: January 6, 2020 1:33 pm

Here is what grandmother of JNU's Oishi Ghosh said

ঐশীর দিদিমা শান্তি সিনহা

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ে তাণ্ডবের প্রতিবাদে দেশজুড়ে বিক্ষোভ হচ্ছে। যার আঁচ এসেছে পড়েছে জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষের শহর দুর্গাপুরেও। সেখানে রেললাইনে নেমে প্রতিবাদ জানাচ্ছে SFI। ইতিমধ্যে এই ঘটনাকে ভয়ংকর অ্যাখ্যা দিয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী ও বিদেশমন্ত্রী। সমালোচনায় সরব হয়েছেন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনীরাও। জেএনইউ প্রাক্তন ছাত্র সংসদ সভাপতি কানহাইয়া কুমার তো সরাসরি তোপ দেগেছেন কেন্দ্রের বিরুদ্ধে। সরকার পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে বলে অভিযোগ জানিয়েছেন। পরিস্থিতি সামলাতে দিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে দোষীদের শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে। এর মাঝেই এই বিষয়ে মুখ খুললেন ঐশী ঘোষের দিদিমা শান্তি সিনহা। এই ঘটনায় অশীতিপর ওই বৃদ্ধা অত্যন্ত কষ্ট পেলেও নাতনির লড়াইকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন। পুরো পরিবার যে ঐশীর পাশে আছে তাও পরিষ্কার বুঝিয়ে দিয়েছেন।

দুর্গাপুরের মায়াবাজারে অবস্থিত DVC-এর আবাসনে থাকেন তিনি। সোমবার জেএনইউর ঘটনা নিয়ে মুখ খুলতে গিয়ে একরাশ ক্ষোভও প্রকাশ করেন। এপ্রসঙ্গে বলেন, ‘অত্যন্ত দৃঢ় মনোভাব আমার নাতনির। মার খেলেও লড়াই করে যাবে। এই লড়াই থেকে ওকে ফিরিয়ে আনার কোনও ইচ্ছাও আমাদের নেই। ওর লড়াই ওকেই লড়তে হবে। আর আমরা জানি যে ও সফল হবেই।’

[আরও পড়ুন: ক্রমশ জোরাল হচ্ছে ‘বাঘ’ আতঙ্ক, ঝাড়গ্রামের জঙ্গলে পাতা হল খাঁচা]

প্রায় একই কথা শোনান ঐশীর বাবা দেবাশিস ঘোষও। তিনি বলেন, আমার মেয়ের পাশে তার অগুণিত কর্মী, সহপাঠী ও নেতৃত্ব রয়েছে। আমরা দুর্বল নয়। আর ওদের লড়াই ওরাই লড়তে সক্ষম। আজ আমার মেয়ে আক্রান্ত হল৷ কাল হয়তো আমি হব৷ আসলে দেশের পরিস্থিতি অত্যন্ত টালমাটাল৷ সেই কারণেই আমরা ভয় পাচ্ছি৷ আমার মেয়ের মাথায় পাঁচটি সেলাই হয়েছে বলে শুনেছি। তবে এখনও ওর সঙ্গে সরাসরি কথা হয়নি৷ আমার মেয়ে বামপন্থী আন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত৷ বর্তমানে সব জায়গাতেই প্রত্যেকে বামপন্থীদের রোখার চেষ্টা করছে৷’

[আরও পড়ুন: মানিকচকে আমবাগানে বোমা বিস্ফোরণ, আহত ২]

 

এই ঘটনার জেরে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি করে ঐশীর মা বলেন, ‘উপাচার্যের পদত্যাগ করা উচিত৷ কোনও কাজ করে না৷ ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে আলোচনার ধার ধারেন না৷ এতবড় ঘটনা ঘটছে তাও উনি চুপ করে রয়েছেন৷ অন্যদিকে আমার মেয়ের আন্দোলনে বহু ছাত্রছাত্রী ওর পাশে রয়েছে৷ আমি কখনও ওকে আন্দোলন থেকে পিছিয়ে আসতে নিষেধ করব না৷’

ছবি: উদয়ন গুহ রায়

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement