BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে গ্রিন সিগন্যাল পেল রাজ্য

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 21, 2016 9:00 am|    Updated: July 13, 2018 6:39 pm

High court ordered to recruit primary teachers in West Bengal

স্টাফ রিপোর্টার: প্রাথমিক টেটে ফের স্বস্তি রাজ্য সরকারের৷ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি নিয়ে কলকাতা হাই কোর্টে নতুন করে দায়ের হওয়া একটি মামলায়  স্থগিতাদেশ দিল না হাই কোর্ট৷ ফলে প্রাথমিকস্তরে শিক্ষক নিয়োগে আর কোনও বাধা রইল না রাজ্যের৷

এর আগে প্রাথমিক টেটে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীদের স্বার্থ সুরক্ষিত করতে একটি মামলা দায়ের হয় হাই কোর্টের বিচারপতি সি এস কারনানের সিঙ্গল বেঞ্চে৷ সেই মামলার জেরে দীর্ঘদিন প্রাথমিক টেটের ফলপ্রকাশ স্থগিত ছিল৷ বিচারপতি কারনান মামলার রায় দেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই একযোগে প্রাথমিক ও উচ্চ প্রাথমিক টেটের ফল প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ ও স্কুল সার্ভিস কমিশন৷ ফল প্রকাশের পর কয়েক দিনের মধ্যে প্রাথমিকস্তরে শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিও জারি করে পর্ষদ৷ শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি চ্যালেঞ্জ করে নিয়োগে স্থগিতাদেশ চেয়ে হাই কোর্টে নতুন করে একটি মামলা দায়ের করেন রীতা হালদার ও বেশ কয়েক জন প্রার্থী৷

সেই মামলায় বৃহস্পতিবার বিচারপতি দীপঙ্কর দত্ত ও বিচারপতি সিদ্ধার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ মামলাকারীদের আবেদন প্রাথমিকভাবে খারিজ করে দিয়েছে৷ অর্থাৎ প্রাথমিকস্তরে শিক্ষক নিয়োগে কোনও বাধা থাকছে না৷  বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ করতে পারবে রাজ্য সরকার৷ পাশাপাশি নতুন করে দায়ের হওয়া এই মামলাটির শুনানিও হাই কোর্টে একইসঙ্গে চলবে বলে জানিয়ে দিয়েছে ডিভিশন বেঞ্চ৷ এদিন ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, প্রাথমিকস্তরে শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিতে স্থগিতাদেশ দিলে জটিলতা বাড়বে৷ ফলে বিজ্ঞপ্তিতে কোনও স্থগিতাদেশ নয়৷ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী শিক্ষক নিয়োগ করতে পারবে রাজ্য সরকার৷ শিক্ষকরা কাজ চালিয়ে যেতে পারবেন৷

তবে নিয়োগের সময় শিক্ষকদের নিয়োগপত্রে লিখতে হবে ‘বিষয়টি বিচারাধীন’৷ এই মামলার রায়ের উপর নতুন নিয়োগ পাওয়া ওই শিক্ষকদের ভবিষ্যৎ নির্ভর করবে৷

এদিকে, প্রাথমিকস্তরে কারা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ও কারা অপ্রশিক্ষিত হিসাবে গণ্য হবেন তা নিয়ে পৃথক আরও একটি মামলা দায়ের হয়েছিল বিচারপতি তপব্রত চক্রবর্তীর সিঙ্গল বেঞ্চে৷ সেই মামলার শুনানিতে এদিন মামলাকারীর আইনজীবী জানতে চান, রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া অনুমোদিত বিশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি থেকে পাস করা প্রার্থীরা প্রাথমিকস্তরে প্রক্ষিশণপ্রাপ্ত হিসাবে গণ্য হবেন কি না? মামলাকারীর আইনজীবীর এই প্রশ্নের উত্তরে সরকারি আইনজীবী এদিন জানিয়েছেন, ওয়েস্ট বেঙ্গল টিচার্স রিত্রুটমেণ্ট রুল অনুযায়ী রিহ্যাবিলিটেশন কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া অনুমোদিত বিশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি থেকে পাস করা প্রার্থীরা এক্ষেত্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী হিসাবে গ্রাহ্য হবেন না৷ এই পৃথক মামলাটিও হাই কোর্টে চলবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন বিচারপতি চক্রবর্তী৷

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে