১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘ভোটপ্রচারের মাধ্যম হিসাবে ব্যবহৃত হচ্ছেন নেতাজি’, বিজেপিকে তোপ হিন্দু মহাসভার

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 23, 2022 9:28 am|    Updated: January 23, 2022 9:30 am

Hindu Mahasabha slams Modi Govt. on Netaji death probe issue | Sangbad Pratidin

অর্ণব দাস, বারাকপুর: নেতাজি ইস্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হল হিন্দু মহাসভা। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মদিবসের আগের দিন বারাকপুর নীলগঞ্জের আইএনএ বীর সৈনিকদের স্মরণে যজ্ঞানুষ্ঠান শেষে নেতাজির ট্যাবলো বাতিল করা-সহ একাধিক ইস্যুতে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে সরব হলেন অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার রাজ্য সভাপতি চন্দ্রচূড় ঘোষ গোস্বামী। আগামী দিনেও নেতাজি ইস্যুতে আন্দোলন করার হুঁশিয়ারিও দেন তিনি।

এদিন বারাকপুর নীলগঞ্জের সাহেববাগানে আইএনএ বীর শহিদ সৈনিকদের স্মরণে অখিল ভারত হিন্দু মহাসভা, সনাতন ভারত এবং নেতাজি সুভাষ মিশনের পক্ষ থেকে যজ্ঞানুষ্ঠান করা হয়। এর পরই নেতাজির একাধিক ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হয় হিন্দু মহাসভা। অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার কার্যকরী রাজ্য সভাপতি চন্দ্রচূড় গোস্বামী। এদিন তিনি দাবি করে বলেন, এই সাহেববাগানে হাজার হাজার আইএনএ বন্দি সৈনিকদের ১৯৪৫ সালে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়েছিল। সেই শহিদরা আজও তাদের প্রাপ্য সম্মান এবং স্বীকৃতি পাননি। অবিলম্বে তাদের এই সম্মান জানাতে হবে। পাশাপাশি সাহেব বাগানকে হেরিটেজ ঘোষণা করে শহিদ তীর্থ করতে হবে। তিনি আরও বলেন, “আইএনএ বীর শহিদদের হত্যাকারী মেননের পরিবার আজও সরকারের পক্ষ থেকে পেনশন পাচ্ছে। অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে।”

[আরও পড়ুন: বিমান দুর্ঘটনায় মারা যাননি নেতাজি, তা হলে তদন্ত বন্ধ হল কেন?]

কেন্দ্রীয় সরকারের সঙ্গে রাজ্য সরকারের নেতাজির ট্যাবলো ইস্যুতে সংঘাত নিয়ে অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার অবস্থান স্পষ্ট করে সংগঠনের কার্যকরী রাজ্য সভাপতি বলেন, “সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকীতে কেন্দ্রীয় সরকারের উচিত ছিল প্রতিটি রাজ্যকে বাধ্যতামূলকভাবে নেতাজির কিছু বিষয় নিয়ে উপস্থাপনা করার কথা বলা। সেই জায়গায় কেন্দ্রীয় সরকার তার ট্যাবলো নিচ্ছেন না। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক। এই ঘটনার আমরা তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।”

কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে নেতাজির একাধিক ইস্যুতে প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, “অতীতের এবং বর্তমান সরকার একইভাবে ভোটপ্রচারের মাধ্যম হিসাবে নেতাজিকে ব্যবহার করছে। ভোটের আগে নেতাজির জন্মদিনকে পরাক্রম দিবস ঘোষণা হয়েছে। আগামীতে বহু রাজ্যের বিধানসভা ভোট। একইভাবে নেতাজির জন্মদিনের ঠিক আগে ভোটের জন্য ইন্ডিয়া গেটে তার মূর্তি স্থাপন করার কথা ঘোষণা হল। কিন্তু নেতাজির কী হল সে বিষয়ে ভারতবাসীর এখনও ধোঁয়াশায় রয়েছেন। একাধিক কমিশন হয়েছে, ফাইল এসেছে। কিন্তু সবটা প্রকাশ করা হয়নি।” তিনি দাবি করেন, জাপানের রেনকোজি টেম্পলে নেতাজির চিতাভস্ম বলা হচ্ছে তার ডিএনএ টেস্ট করে রিপোর্ট দেশবাসীর সামনে রাখা হোক। আগামীতে এই বিষয়গুলি নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলন করারও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় হিন্দু মহাসভার পক্ষ থেকে।

[আরও পড়ুন: বিমান দুর্ঘটনায় মারা যাননি নেতাজি, তা হলে তদন্ত বন্ধ হল কেন?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে