৩১ চৈত্র  ১৪২৭  বুধবার ১৪ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অবশেষে ‘শাহি’ সৌজন্য! বঙ্গসফরে এসে মমতার দ্রুত আরোগ্য কামনা অমিত শাহের

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 14, 2021 8:30 pm|    Updated: March 14, 2021 8:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুখ্যমন্ত্রীর পায়ে চোট ঘিরে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। অথচ সৌজন্যের খাতিরে একবারও ফোন করে খবর নেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (HM Amit Shah)। যা নিয়ে তীব্র বিতর্ক দানা বেঁধেছে। শেষপর্যন্ত রবিবার বঙ্গ সফরে এসে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (CM Mamata Banerjee) আরোগ্য কামনা করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বললেন, ‘দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন উনি।’

এদিন দুপুরে খড়গপুরের বিজেপির তারকা প্রার্থী হিরন্ময় চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে রোড শো করার কথা ছিল শাহের। কিন্তু অসম থেকে জনসভা সেরে বাংলায় আসতে বেশ কিছুটা দেরি করে ফেলেন তিনি। তবু জমায়েত করা বিজেপি নেতা-কর্মী-সমর্থকদের উৎসাহে ভাঁটা পড়েনি। শেষপর্যন্ত এদিন সন্ধেবেলা খড়গপুরে রোড শো করলেন শাহ। মাত্র ৯০০ মিটার পথ পেরতে তিন ঘণ্টার বেশি সময় লেগে যায় তাঁর। কারণ, রাস্তায় ভিড় জমিয়েছিলেন বহু মানুষ। এদিন শাহের সঙ্গে ছিলেন খড়গপুরের বিজেপি প্রার্থী অভিনেতা হিরণ, বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয় এবং রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

[আরও পড়ুন: ওমপ্রকাশ ‘বহিরাগত’, ক্ষোভে তৃণমূল ছাড়লেন শিলিগুড়ির দুই নেতা]

এদিন রোড শো চলাকালীন বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, “আজকের এই ব়্যালি দেখে বোঝাই যাচ্ছে বাংলার মানুষ পরিবর্তন চাইছে। দু’শোর বেশি আসন নিয়ে বাংলায় ক্ষমতায় আসবে বিজেপি। এবার আসল পরিবর্তন হবে।” তবে নন্দীগ্রামে গিয়ে তৃণমূল নেত্রীর চোটের বিষয় মুখ খুলতে চাননি শাহ। তাঁর কথায়, “বাংলার মানুষ সব দেখছেন, সব বুঝছেন। ইভিএমে উত্তর দেবেন। কমিশন ও তদন্তকারী সংস্থা নিজের কাজ করছে। আমি এ নিয়ে কিছু বলতে চাই না।”

বিভিন্ন মন্দির দর্শনে যাচ্ছেন তৃণমূল প্রার্থীরা। জনসভার মঞ্চ থেকে চণ্ডীপাঠ করছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিষয়টিকে শাহের কটাক্ষ, “বিজেপির পরিবর্তনযাত্রার ফল মিলছে। কিন্তু এত দেরিতে এসব করে কোনও লাভ হবে না। বাংলার মানুষ পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন।”

[আরও পড়ুন: ‘১০ বছরে সোনার বাংলা গড়েছেন দিদি’, দলবদলের জল্পনার মাঝেই ভোট প্রচারে দেব]

প্রসঙ্গত, এদিন পুরুলিয়া ও পূর্ব মেদিনীপুরে সভা করেন আরেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিও। সেখানে তাঁর কটাক্ষ, “আপনি নন্দীগ্রামের সঙ্গে খেলা করেছেন দিদি। এই নির্বাচনে নন্দীগ্রাম কে কলঙ্কিত করার জন্যে মিথ্যে কথা বলেছেন। এবার নন্দীগ্রাম আপনার খেলা শেষ করবে।” স্মৃতি ইরানিও বিজেপির বঙ্গজয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী। তিনি বলেন, “বাংলার মানুষ ঠিক করে ফেলেছে ২৭ মার্চ পদ্মে ছাপ দিয়ে বাংলা থেকে তৃণমূলকে সাফ করে দেবে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement