BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ৪ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

অলৌকিক ঘটনা? পাত্রসায়রে শ্মশানকালী মন্দিরের সাবমার্সিবল পাম্প থেকে বেরোচ্ছে ফুটন্ত জল!

Published by: Sayani Sen |    Posted: August 15, 2020 7:44 pm|    Updated: August 15, 2020 11:01 pm

Hot water flowing from a submersible pump in Patrasayar

দেবব্রত দাস, খাতড়া: সাবমার্সিবল পাম্প থেকে ফুটন্ত জল বেরোচ্ছে শুনেছেন কখনও? অবাক হচ্ছেন তাই তো? ভাবছেন এ আবার কীভাবে সম্ভব। কিন্তু স্থানীয়দের মত অনুযায়ী, এমনই ঘটনা ঘটল বাঁকুড়ার (Bankura) পাত্রসায়রের কাকাটিয়া গ্রামে। তাঁরা বিষয়টিকে অলৌকিক বলেই দাবি করছেন। যদিও এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ মহলের তরফে এখনও কিছু জানা যায়নি।

বাঁকুড়া জেলার অন্যতম কৃষিপ্রধান অঞ্চল পাত্রসায়র। কৃষিকাজ এবং গৃহস্থালির প্রয়োজনে ওই এলাকায় একাধিক সাবমার্সিবল কিংবা টিউবওয়েল রয়েছে। বছর দুয়েক আগে কাকাটিয়া গ্রামের অদূরে শ্মশানকালী মন্দিরের কাছে এই সাবমার্সিবল পাম্প বসানো হয়। স্থানীয়দের দাবি, ১২০ ফুট খনন করতেই ভাল জল পেয়ে যান। তাই সাবমার্সিবল পাম্পের জন্য তার চেয়ে বেশি গভীরতায় আর মাটি খোঁড়া হয়নি। মূলত শ্মশানকালী মন্দিরের কাজে এবং শ্মশানযাত্রীরাই সাবমার্সিবল পাম্পের জল ব্যবহার করেন।

[আরও পড়ুন: কালা দিবস পালনের ডাক দিয়ে বেলপাহাড়িতে মাওবাদী পোস্টার, ফিরল আতঙ্কময় দিনের স্মৃতি]

এতদিন ওই সাবমার্সিবল পাম্প থেকে স্বাভাবিক উষ্ণতারই জল পাওয়া যাচ্ছিল। তবে আশ্চর্যজনক কাণ্ড ঘটল সম্প্রতি। দেখা গিয়েছে, শুক্রবার ওই সাবমার্সিবল পাম্প থেকে একেবারে ফুটন্ত জল বেরোচ্ছে। অনেকেই কৌতূহলবশত ওই জলে হাত দিয়ে ফেলেছেন। সাবমার্সিবল পাম্প থেকে বেরনো জল এত গরম যে তাতে হাত দিলেই ফোসকা পড়ে যাচ্ছে। তাই আতঙ্কে অনেকেই আপাতত সাবমার্সিবল পাম্পের জল ব্যবহারও বন্ধ করে দিয়েছেন।

কিন্তু কেন আচমকা এমন কাণ্ড ঘটল? স্থানীয়দের দাবি, শ্মশানকালী মন্দির সংলগ্ন ওই সাবমার্সিবল পাম্প থেকে তপ্ত জল বেরনোর নেপথ্যে অলৌকিক কোনও কারণ লুকিয়ে রয়েছে। এলাকাবাসীর দাবির আদৌ কোনও সত্যতা রয়েছে কিনা, তা স্পষ্ট নয়। যদিও বিশেষজ্ঞদের থেকে এখনও পর্যন্ত কোনও কারণ জানা সম্ভব হয়নি।

[আরও পড়ুন: দেশপ্রেমের কাছে ম্লান অসুস্থতা, হাসপাতালের জানলা দিয়ে জাতীয় পতাকা ওড়ালেন করোনা রোগীরা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে