BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বারুইপুরে বধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, খুনের অভিযোগ স্বামীর বিরুদ্ধে

Published by: Suparna Majumder |    Posted: August 18, 2018 1:54 pm|    Updated: August 18, 2018 1:56 pm

Housewife killed for dowry in S 24 Parganas

দেবব্রত মণ্ডল, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: বিয়ের ছয় মাসের মধ্যে বধূর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার বারুইপুরে। মৃত গৃহবধূর নাম রিতা চক্রবর্তী। বয়স ২৩ বছর। পণের জন্যই রীতাকে খুন করেছে তাঁর স্বামী সুমন চক্রবর্তী। এমনই অভিযোগ গৃহবধূর বাড়ির লোকজনের।

সুন্দরবনের সন্দেশখালির গব্বেরিয়া এলাকার বাসিন্দা রিতা। বারুইপুরের বনবিবিতলার সুমনের সঙ্গে প্রথম আলাপেই প্রেম হয় তাঁর। অল্প দিনেই দু’জনের সম্পর্ক গাঢ় হয়। পরিবারের সম্মতিতেই ছয় মাস আগে ঘটা করে বিয়েও হয়। কিন্তু বিয়ের পর থেকেই শুরু হয় অশান্তি। নিত্যদিন ঝামেলা লেগে লেগে থাকত। রিতার পরিবারের সদস্যদের দাবি, বিয়ের পর থেকেই রিতাকে দেনা-পাওনার জন্য চাপ দিত সুমন। এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে প্রায়ই ঝামেলা হত। সেই ঝামেলার পরিণতি যে এমন হবে, তা ভাবতে পারেনি গৃহবধূর পরিবার।

[বারাসতে যান্ত্রিক গোলযোগের জের, বনগাঁ শাখায় দেড় ঘণ্টা বন্ধ রেল পরিষেবা]

রিতার মৃত্যুর খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে যায় বারুইপুর থানার পুলিশ। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে অভিযুক্ত সুমন চক্রবর্তীকে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে মৃত্যুর কারণ জানার চেষ্টা করছে পুলিশ। প্রয়োজনে প্রতিবেশীদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, ঘরোয়া অশান্তির জেরেই আত্মঘাতী হয়েছে ওই গৃহবধূ। কিন্তু খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়ার সম্ভাবনাও সম্পূর্ণ উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না।   

[ভিক্ষুকের বাড়িতে বিদ্যুতের বিল লক্ষাধিক টাকা, হয়রানির শিকার ‘ভিখারি গ্রাম’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে