BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সন্দেহের জের, স্ত্রীকে পিটিয়ে খুনের পর আত্মঘাতী স্বামী

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 15, 2019 2:15 pm|    Updated: June 15, 2019 2:15 pm

Husband accused of beating wife to with hammer after taking poison.

ছবি: প্রতীকী

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: সন্দেহের বশে স্ত্রীকে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে খুনের পর আত্মঘাতী হল এক ব্যক্তি। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের রামপুরহাট থানার দখলবাটি গ্রামের মালপাড়ায়। মৃতরা হল তমালি মাল (৪২) ও পরেশ মাল (৪৭)। খবর পেয়ে পুলিশ এসে ওই দম্পতিকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

[আরও পড়ুন- তল্লাশির নামে দোকান লুটের অভিযোগ, ব্যবসায়ী-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধে রণক্ষেত্র জগদ্দল]

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সন্দেহের জেরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে প্রায়দিনই অশান্তি হত। শুক্রবার রাতে দু’জনে বারান্দায় ঘুমোচ্ছিলেন। আর ঘরে শুয়ে ছিল তাঁদের মেয়ে। অনেক রাতে ঘরের ভিতর একটি বিষধর সাপ ঢোকে। বিষয়টি বুঝতে পেরে চিৎকার শুরু করে মেয়ে। তখন ঘুম থেকে উঠে তমালি ও পরেশ দু’জনে মিলে সাপটিকে মারেন। সমস্যা মেটার পর ফের বারান্দায় গিয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তাঁরা। আর মেয়ে ফিরেছিল ঘরে। কিন্তু, কিছুক্ষণ পর আচমকা মায়ের চিৎকার শুনে ঘুম থেকে উঠে পরে মেয়েটি। তারপর দরজা খুলে দেখে তমালির মুখে দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে। আর তাঁকে হাতুড়ি দিয়ে মারছেন পরেশ।

[আরও পড়ুন- বোমাবাজি-গুলিতে উত্তপ্ত ডোমকল, খুন ৩ তৃণমূল কর্মী]

এপ্রসঙ্গে মৃত দম্পতির মেয়ে বলে, “সাপটিকে মারার পর বাবা ও মা ফের বারান্দায় শুয়ে পড়েছিল। পরে মায়ের চিৎকার শুনে দরজা খুলে দেখি মায়ের মুখে রক্ত। আর বাবা মাকে হাতুড়ি দিয়ে মারছে। আমার চিৎকার শুনে পাশের বাড়ি থেকে লোকজন ছুটে এসে বাবাকে আটকায়। তবে ততক্ষণে বাবা মৃত প্রায়। কারণ, বাবা আগেই বিষ খেয়ে নিয়েছিল। কিছুক্ষণ বাদে বাড়িতেই মারা যায়। পাড়ার লোক পুলিশকে খবর দিলে বাবা ও মাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে রামপুরহাট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে মারা যায় মা।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×