BREAKING NEWS

২ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘নেতাজিকে নিয়ে রাজনীতি করবই, বাপের হিম্মত থাকলে আটকাক’, ফের বিতর্কিত মন্তব্য দিলীপের

Published by: Sayani Sen |    Posted: January 24, 2021 4:11 pm|    Updated: January 24, 2021 4:11 pm

I will do politics with Netaji Subhash Chandra Bose, says Dilip Ghosh । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দোরগোড়ায় বিধানসভা নির্বাচন (Assembly Election 2021)। তার আগে যেন বড়ই প্রাসঙ্গিক নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু। ভোটের আগে তাঁর ১২৫তম জন্মজয়ন্তী পালন নিয়ে কেন্দ্র ও রাজ্যের মধ্যে ‘প্রতিযোগিতা’ চলে। নেতাজিকে নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে বলে শাসক-বিরোধী দু’পক্ষের মধ্যে চলছে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ি। যদিও তা অস্বীকার করেছে উভয়পক্ষই। কিন্তু দড়ি টানাটানির মাঝে বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। নেতাজিকে নিয়ে রাজনীতি করা হবেই বলে সাফ জানিয়ে দিলেন তিনি।

রবিবার নদিয়া উত্তরের বিজেপি শিক্ষা সেলের সংগঠনের পক্ষ থেকে ধুবুলিয়া থানার হাঁসডাঙা এলাকায় একটি কার্যবাহী বৈঠকের আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। তিনি বলেন, “নেতাজি রাজনৈতিক নেতা ছিলেন। তাঁকে নিয়ে রাজনীতি করবই। কারোর বাপের হিম্মত আছে তো আটকাক।” নেতাজি আবেগকে কাজে লাগিয়ে রাজনৈতিক নেতা-কর্মীরা যে ভোটবাক্স আরও মজবুত করার চেষ্টা করছে, সে অভিযোগ নতুন নয়। তারই মাঝে বিজেপি রাজ্য সভাপতির মন্তব্য নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই বিভিন্ন মহলে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। তাঁর মন্তব্যের সমালোচনাও করেছেন অনেকেই।

[আরও পড়ুন: ‘ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বদলা নেবো, তৈরি থাকো’, বিরোধী বিজেপিকে কড়া হুঁশিয়ারি অভিষেকের]

নেতাজির ১২৫তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে শনিবার একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সংঘাতের মাঝে ওই অনুষ্ঠানে এক মঞ্চে হাজির ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মঞ্চে ওঠার পরই অনুষ্ঠানের তাল কাটে। কারণ, সেই সময় ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দিতে থাকে বেশ কয়েকজন। তাতে ক্ষুব্ধ হন মুখ্যমন্ত্রী। সরকারি অনুষ্ঠানে এ ধরনের কাজ অনভিপ্রেত। কাউকে আমন্ত্রণ করে অপমান করা উচিত নয় বলেও দাবি করে বক্তব্য রাখতে অস্বীকার করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ইস্যুতে আপাতত সরগরম রাজ্য রাজনীতি। তার পরিপ্রেক্ষিতেও বক্তব্য রাখেন দিলীপ।

তিনি বলেন, “জয় শ্রীরামকে যারা ভয় পায় তাদের রাজনীতি করা উচিত নয়। প্রতিদিন রাস্তায় দাঁড়িয়ে আমাকে গো ব্যাক স্লোগান, কালো পতাকা দেখায় আমি তো কিছু বলি না। যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জয় শ্রীরাম বলার জন্য লোককে জেলে পাঠায়, পুলিশ দিয়ে মারধর করিয়েছে। গালি দিয়েছে। তাঁর তো এটাই পাওনা।” তবে নেতাজির (Netaji Subhash Chandra Bose) জন্মজয়ন্তীর  অনুষ্ঠানে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব বিভিন্ন মহলের অনেকেই।

[আরও পড়ুন: শুভেন্দু অধিকারীর পালটা, সোমবার পুরশুড়ায় জনসভা মমতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement