BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

চাপে পড়ে সুর নরম, আদ্রা ডিভিশনে ট্রেন বাতিলের প্রস্তাব স্থগিত রেলের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: February 22, 2020 9:59 am|    Updated: February 22, 2020 3:17 pm

An Images

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: অবশেষে চাপে পড়ে আদ্রা ডিভিশনে ১৮ জোড়া ট্রেন বাতিলের প্রস্তাবকে স্থগিত করল রেল। শুক্রবার এই বিষয়ে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে তারা জানায়, এই প্রস্তাবে অনুমোদনই দেওয়া হয়নি। তবে এইরকম ঘটনা ঘটলে আগে থেকে প্রচলিত পদ্ধতি দ্বারা জানানো হবে। দক্ষিণ পূর্ব রেলের আদ্রা ডিভিশনের এই বিজ্ঞপ্তিকে ঘিরেও আবার নতুন করে বিভ্রান্তি ছড়ানোর অভিযোগ তুলছে বিরোধীরা।

তবে পুরুলিয়ার বিজেপি সাংসদ এই প্রস্তাবের ভিত্তিতে রেল মন্ত্রীকে চিঠি লিখে তদন্তের দাবি জানাবেন বলে খবর। সেইসঙ্গে বাঁকুড়ার সাংসদ সুভাষ সরকারও এদিন আদ্রা ডিভিশনের ডিআরএমের সঙ্গে দেখা করে এই প্রস্তাব নিয়ে প্রতিবাদ করেন। এদিকে এই প্রস্তাবের ভিত্তিতেই পুরুলিয়া জেলা কংগ্রেস জানিয়েছে, এই বিষয়ে রেলকে ক্ষমা চাইতে হবে। আগামী সোমবার কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধি দল ডিআরএমের সঙ্গে দেখা করবে। সেইসঙ্গে মাধ্যমিক-উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা শেষ হলে রেলের এই প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন তাঁরা। তবে পুরুলিয়ার সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো বলেন, “এই ঘটনায় আমি রেল মন্ত্রীকে চিঠি লিখে তদন্ত দাবি করছি। এরকম ঘটনা ঘটলে আমি রাস্তায় নেমে আন্দোলন করব।”

[ আরও পড়ুন: তেহট্টে করোনার ছোবল! গুজব ছড়ানোয় যুবককে গ্রেপ্তার করল পুলিশ ]

চলতি মাসের ১৫ তারিখ আদ্রা ডিভিশনের সিনিয়র ডিভিশন অপারেটিং ম্যানেজারের সই করা ১৮ জোড়া ট্রেন বাতিলের প্রস্তাব প্রকাশ্যে আসতেই জেলা জুড়ে শোরগোল পড়ে যায়। শাসক দল তৃণমূল পথে নেমে আন্দোলন শুরু করে। সোশাল সাইটেও সমালোচনার ঝড় ওঠে। ফলে আদ্রা ডিভিশন চাপে পড়ে এদিন প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ট্রেন বাতিলের প্রস্তাব নিয়ে যে প্রচার করা হচ্ছে তা ঠিক নয়। কারণ এই প্রস্তাব অনুমোদিত হয়নি। কোন কারণে মেল, এক্সপ্রেস, প্যাসে়ঞ্জার ট্রেন চালু বা রদ হলে প্রচলিত পদ্ধতি দ্বারা তা জানানো হবে। তবে এই প্রেস বিবৃতি নিয়ে সরব হয়েছে সিপিএম ও কংগ্রেস।

সিপিএমের পুরুলিয়া জেলা সম্পাদক প্রদীপ রায় বলেন, “আদ্রা ডিভিশনের অপারেটিং বিভাগ যে ট্রেন সাময়িক বাতিল ও স্থগিত সম্পর্কে নোট প্রস্তুত করেছিল যা এক সুদূরপ্রসারী জনবিরোধী পরিকল্পনার অংশ। তাই আমরা মনে করি যাত্রী পরিষেবার বিঘ্নকারী ট্রেন বাতিল প্রস্তাব রেল কর্তৃপক্ষ স্থগিত রেখেছে। বাতিল ঘোষণা করেনি।” পুরুলিয়া জেলা কংগ্রেস জানিয়েছে, রেলের কোন আধিকারিক এভাবে প্রস্তাব দিতে পারেন না। রেলের মালিক জনগণ। জেলা কংগ্রেস সভাপতি তথা বিধায়ক নেপাল মাহাতো বলেন, “যে আধিকারিক এই কাজ করেছেন তাকে অবিলম্বে রেল বরখাস্ত করুক। এই বিষয়ে রেলকে ক্ষমা চাইতে হবে। তবে আমার ধারণা এটা আসলে বিজেপি সরকারের ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্র রুখতে পরীক্ষা শেষে আমরা ধারাবাহিক আন্দোলনে নামব। এই ট্রেনগুলি বাতিল হলে যারা ক্ষতিগ্রস্থ হবেন সেই আম জনতাকে আমাদের আন্দোলনে শামিল হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।”

[ আরও পড়ুন: অসমাপ্ত কবিতার বুকেই মৃত্যুশয্যা, ভাষা দিবসে ঢাকায় গিয়ে প্রয়াত হুগলির কবি ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement