BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঋতুপর্ণার ছবির জন্য ব্যাহত হাসপাতালের পরিষেবা, চাপের মুখে বন্ধ শুটিং

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 29, 2019 3:26 pm|    Updated: May 29, 2019 3:27 pm

An Images

শান্তনু কর, জলপাইগুড়ি: বুধবার সকালবেলা অন্যদিনের মতোই ব্যস্ত ছিল জলপাইগুড়ি সদর হাসপাতাল চত্বর। রুটিন চেকআপের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন রোগীরা। কিন্তু কী মুশকিল! ডাক্তারবাবুদের পাত্তাই নেই। কারণ, গোটা হাসপাতাল চত্বরজুড়ে তখন ভিড়। তবে, ভিড়ের কারণটা অন্য। চলছিল জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর এক বলিউড ছবির শুটিং। বেলা বাড়তেই শুটিং দেখার জন্য বাড়তে থাকে ভিড়। জানা গিয়েছে, লেপ্রসি বিভাগে শুটিং চলছিল। অন্যদিকে, রোগীদের নিয়ে উৎকণ্ঠায় পড়ে যান রোগীর আত্মীয়-স্বজনরা। সময়মতো অফিস ঢুকতে না পারায় ক্ষুব্ধ হন স্বাস্থ্য কর্মীরাও। চিকিৎসা করাতে এসে আটকে পড়েন রোগী ও তাঁদের আত্মীয়রা। সবমিলিয়ে বুধবার সকাল থেকেই সরগরম ছিল জলপাইগুড়ির সদর হাসপাতাল। তবে, প্রশাসনের নির্দেশে শুটিং বন্ধ করতে বাধ্য হল ছবির ইউনিটের সদস্যরা। চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন বলিউড ছবির ইউনিট।

[আরও পড়ুন:  অর্জুন মোকাবিলায় তৃণমূলের হাতিয়ার ভগ্নিপতি সুনীল সিং]

বুধবার জলপাইগুড়িতে বলিউড ছবি ‘বাঁশুরি’র শুটিং চলছিল। যেই ছবির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ছবির পরিচালক হরি বিশ্বনাথন। গতকাল অর্থাৎ মঙ্গলবারই ‘বাঁশুরি’র গোটা শুটিং ইউনিট জলপাইগুড়িতে এসে পৌঁছয়। বুধবার সকাল ৯টা থেকে শুরু হয় ছবির শুটিং। কর্মদিবসে প্রবেশ পথ আটকে শুটিং চলায় বেজায় চটেছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাঁদের বক্তব্য, প্রবেশপথ আটকে ছবির কাজ চলায় হাসপাতালে চত্বরে যথারীতি ভিড় বাড়তে থাকে। ফলে, হাসপাতালে ঢুকতে অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয়েছে তাঁদের। উপরন্তু, দেরি করে ঢোকার ফলে রোজকার মতো চেকআপ রাউন্ডে যেতেও দেরি হয়েছে। রোগীর আত্মীয়-স্বজনরাও অসুবিধায় পড়ে অভিযোগ জানানো শুরু করেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের কাছে।

[আরও পড়ুন: গ্রামাঞ্চলে ‘রাম’ নামের মাহাত্ম্যেই ভোট বৃদ্ধি বিজেপির, সমীক্ষায় মিলল চমকপ্রদ তথ্য]

শুটিং গুটিয়ে নেওয়ার অনুরোধ জানান কর্মচারী সংগঠনের সম্পাদক এবং রোগীকল্যাণ সমিতির প্রাক্তন সদস্যর। এরপরই, উত্তেজনা বাড়তে থাকলে খবর যায় অতিরিক্ত জেলাশাসক সুনীল আগরওয়ালের কাছে। স্বাস্থ্য পরিষেবা বিঘ্নিত হওয়ার খবর পেয়ে যারপরনাই ক্ষুব্ধ জেলা প্রশাসন। তৎক্ষণাৎ, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক জগন্নাথ সরকারকে ডেকে হাসপাতাল চত্বরে শ্যুটিং বন্ধ করার নির্দেশ দেন অতিরিক্ত জেলা শাসক। এরপরই শুটিং ইউনিট হাসপাতাল চত্বর থেকে পাততাড়ি গোটাতে বাধ্য হয়। শুটিং ইউনিটের আধিকারিক শম্ভু মুন্সিকে এপ্রসঙ্গে জিজ্ঞেস করা হলে, তিনি বলেন, “৯ থেকে ১১টা অবধি শুটিং করার অনুমতি নেওয়া ছিল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের থেকে। বুধবার সকালে আমাদের শুটিং শুরু করতে একটু দেরি হয়। তবে, প্রশাসনের নির্দেশে শুটিং বন্ধ করে দিয়েছি আমরা।” ছবির শুটিং বন্ধ হওয়াতে যে ‘বাঁশুরি’ টিমের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে, তা বলাই বাহুল্য। তবে, কোনওরকম আগাম ব্যবস্থাপনা ছাড়াই হাসপাতাল চত্বরে শুট করার জন্য কেন বলিউড ছবির ইউনিটকে অনুমতি দেওয়া হল, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দিকে সেই প্রশ্নবাণও ছুঁড়েছেন অনেকে। উল্লেখ্য, এই ছবিতে ঋতুপর্ণার বিপরীতে অভিনয় করছেন বলিউডের খ্যাতনামা পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ। তবে, এদিন জলপাইগুড়িতে তিনি উপস্থিত ছিলেন না।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement