২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘ক্ষমতায় এলে সব জেলায় কারখানা খুলবে বিজেপি’, রায়না থেকে কর্মসংস্থানের আশ্বাস কৈলাসের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: September 30, 2020 10:47 am|    Updated: September 30, 2020 10:47 am

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: “ক্ষমতায় এলে রাজ্যের সব জেলায় কল-কারখানা খুলবে বিজেপি (BJP)। কর্মসংস্থান করা হবে যুবদের”, পূর্ব বর্ধমানের রায়নার বড়বৈনানের জনসভা থেকে এমনই প্রতিশ্রুতি দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya)। পাশাপাশি, এদিনের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) ও তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও নিশানা করেন তিনি।

বিজেপির নবান্ন অভিযান কর্মসূচির প্রাক্কালে পূর্ব বর্ধমানের রায়নায় জনসভার আয়োজন করা হয়েছিল। সভার আগে কৃষি আইন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগেন কৈলাস। তিনি বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কৃষি আইন নিয়ে মানুষকে ভুল বার্তা দিচ্ছেন। যখন কোনও আইন হয়ে যায় তা নিয়ে সাংবিধানিক পদে থেকে কেউ এমন ভুল ব্যাখ্যা করলে তা অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র। উনি অপরাধমূলক আচরণ করছেন। উনি কৃষকের উন্নয়ন চান না।” এরপরই তিনি বলেন, “কৃষি আইনে কৃষকের উপকার হবে। আয় বাড়বে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি একটি প্রকল্প থেকে কৃষকদের জন্য ৬ হাজার টাকা করে দিচ্ছেন যাতে তাঁরা উপকৃত হন। সারা দেশের কৃষকরা ৯০ হাজার কোটি টাকা পেয়ে গিয়েছেন। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের কৃষকরা তা পাননি। দিদি বলছেন, সারা দেশে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি কৃষকদের অ্যাকউন্টে টাকা পাঠাচ্ছেন। আর এখানে দিদি বলছেন তাঁকে পাঠাতে। কারণ, এখানে কাটমানি লাগে!” 

[আরও পড়ুন: পাহাড়ে পার্বতীর পথ আটকেছে করোনাসুর, পুজোর প্রাক্কালে অলক্ষ্মীর ছাপ কুমোরটুলিতে]

কৈলাসের অভিযোগ, “রাজ্যে বোমা, বন্দুক, পিস্তল তৈরি হয়। রাজ্যে আতঙ্কবাদ, নকশালবাদ তৈরি করা হয়েছে। তৃণমূল ক্ষমতায় আসারপর রাজ্যে একটাও কল-কারখানা হয়নি। কেউ চাকরি পায়নি। বরং ১০ হাজার কারখানা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। মানুষ বে-রোজগেরে হয়ে গিয়েছেন।” এরপরই আশ্বাসের সুরে তিনি বলেন, “আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির সরকার আসবে রাজ্যে। সারা রাজ্যে কল-কারখানা হবে। সারা দেশে চাকরির জন্য ঘুরতে হবে না যুবদের। প্রতিটি জেলায় কলকারখানা হবে। জেলার মানুষ সেখানে কাজ পাবেন। এই আমার প্রতিশ্রুতি।”

পুলিশকেও এদিন তোপ দাগেন বিজেপির এই নেতা। বলেন, “যেসব পুলিশ আধিকারিক খারাপ কাজ করছেন তাদের লিস্ট বানিয়েছি। চাকরি করা মুশকিল করে দেব। আমরা ক্ষমতায় এলে কয়েকটা জেল বানাবো। সেই সব লোকেদের সেখানে ঘোরানো হবে। ইমানদারি নিয়ে যে আধিকারিকরা কাজ করছেন তাঁরা সম্মান পাবেন। মোদিজীর নেতৃত্বে বাংলায় বিজেপির ভাল সরকার হবে।” এদিনের সভা থেকে মুকুল রায় সকলকে আশ্বাস দেন যে, “উনি কর্মীদের পাশ থেকে সরবেন না কোনওদিন।”

[আরও পড়ুন: ফের ১৪ দিন লকডাউন হচ্ছে উত্তর ২৪ পরগনায়? জানুন কী বললেন জেলাশাসক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement