BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

৫ দিন মেয়ের দেহ আগলে মা, রবিনসন স্ট্রিট কাণ্ডের ছায়া কামারহাটিতে

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 28, 2020 9:30 pm|    Updated: April 28, 2020 9:30 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: রবিনসন স্ট্রিটের স্মৃতি প্রায় ভুলে গিয়েছিলেন রাজ্যবাসী। কিন্তু মঙ্গলবার করোনা পরিস্থিতির মাঝেই আবার সেই ভয়াবহ স্মৃতি উসকে দিল কামারহাটির একটি ঘটনা। পাঁচ দিন ধরে মৃত মেয়েকে নিয়ে ঘরবন্দি মা। মঙ্গলবার সকালে তা জানার পর তাজ্জব বনে গিয়েছেন এলাকার বাসিন্দারা।

একদিকে করোনার আতঙ্ক। তার উপর মৃত মেয়ের সঙ্গে এতদিন জীবনযাপনের ঘটনা শুনে রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে তাদের। মেয়ের কীভাবে মৃত্যু হয়েছে, সে বিষয়েও স্পষ্ট কোনও উত্তর নেই মায়ের। মঙ্গলবার সকালে কামারহাটি পৌরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের জয়া ভট্টাচার্যর বাড়িতে গিয়েছিলেন প্রতিবেশীরা। বেশ কয়েকদিন জয়াদেবী ও তাঁর মেয়ে পারমিতাকে দেখতে না পেয়ে খোঁজ নিতে যান প্রতিবেশীরা। ঘর থেকে পচা গন্ধ বেরনোয় তাঁদের সন্দেহ হয়। জয়াদেবীকে চেপে ধরতেই তিনি জানান, পারমিতা কয়েকদিন আগে মারা গিয়েছেন। প্রতিবেশীরা ঘরের ভিতর গিয়ে দেখেন, পচা গলা অবস্থায় খাটের উপর পড়ে রয়েছে পারমিতার দেহ। সঙ্গে সঙ্গে খবর দেওয়া হয় থানায়। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়।

[আরও পড়ুন: লকডাউন অমান্য করে রাস্তায় ভিড়, সরাতে গিয়ে হাওড়ার টিকিয়াপাড়ায় আক্রান্ত পুলিশ]

২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সুব্রত চট্টোপাধ্যায় জানান, দিন দশেক আগে মেয়েটি ওয়ার্ড কমিটির অফিস থেকে খাদ্যসামগ্রী নিতে এসেছিল। স্থানীয়দের দাবি, দিন পাঁচেক আগে থেকে তাঁকে আর দেখা যায়নি। এলাকাবাসীর অনুমান, দিন পাঁচেক আগে মেয়েটির মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু কীভাবে তিনি মারা গিয়েছেন সেটি জানা যায়নি। তাই এলাকাবাসীর দাবি, মৃতদেহের করোনা পরীক্ষা করা হোক।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement