BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সামান্য বৃষ্টিতেই জলের নিচে বিষ্ণুপুরের রাস্তা, মেরামতির দাবিতে বিক্ষোভ স্থানীয়দের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 25, 2020 6:57 pm|    Updated: August 25, 2020 6:57 pm

An Images

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: একে জল বেরনোর কোনও পথ নেই। তার উপর পথের দু’ধারের দোকান ঘরগুলি তৈরি হয়েছে রাস্তা থেকে বেশ খানিকটা উঁচুতে। ফলে বৃষ্টি হলেই পুকুর হয়ে যায় ব্যস্ততম রাস্তা। কয়েকদিনের নিম্নচাপের বৃষ্টির পর তো হাঁটু সমান জল পেরিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার (South 24 Pargana) বিষ্ণুপুরের সিংহী মোড় রোড এলাকার বাসিন্দাদের। প্রতিবাদে মঙ্গলবার সিংহীর মোড়ে নিবারণ দত্ত রোড অবরোধ করে রাখেন স্থানীয়রা। দীর্ঘক্ষণ চলে বিক্ষোভও। শেষপর্যন্ত পুলিশের আশ্বাসে অবরোধ ওঠে।

সমস্যা দীর্ঘদিনের। কোনও নিকাশিনালা না থাকায় প্রতিবছরই বর্ষার হাঁটু সমান জল দাঁড়িয়ে যায় নিবারণ দত্ত রোডের সিংহীর মোড় এলাকার ত্রিশ ফুট দীর্ঘ রাস্তা জুড়ে। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে নাজেহাল অবস্থা এলাকাবাসীর। প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনাও। বাসিন্দাদের অভিযোগ, বহুবার বহু জায়গায় দরবার করেও সমস্যার সমাধান হয়নি। তাই অবিলম্বে রাস্তা মেরামত ও স্থায়ী জলনিকাশি ব্যবস্থার দাবিতে মঙ্গলবার রাস্তা অবরোধ করেন এলাকার বাসিন্দারা। অবরোধ তুলতে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলেও প্রথমে আন্দোলন থেকে সরতে রাজি হয়নি বিক্ষোভকারীরা। পরে পুলিশ-প্রশাসনের আশ্বাসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

S24-PGS-2

[আরও পড়ুন: কুরমিদের আবেদনে সাড়া, করমপুজোয় জঙ্গলমহলে ছুটি ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

এবিষয়ে বিষ্ণুপুর কেন্দ্রের বিধায়ক দিলীপ মণ্ডল জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে তিনি পূর্ত দপ্তরের সঙ্গে কথা বলেছেন। খুব তাড়াতাড়িই ওই রাস্তা মেরামত হবে। বৃষ্টির জল যাতে রাস্তায় জমতে না পারে তার জন্য তৈরি হবে নিকাশিনালাও। সেই কাজের পরিকল্পনা অনুযায়ী এস্টিমেটও হয়ে গিয়েছে। খুব শীঘ্রই শুরু হয়ে যাবে কাজ।

[আরও পড়ুন:‘আমফানের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কাজ শেষ করুন ৭ দিনের মধ্যে’, প্রশাসনিক কর্তাদের কড়া নির্দেশ মমতার়়]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement