BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউন অফার! বাড়িতে বসে সবজি কিনলেই স‌্যানিটাইজার ফ্রি

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 26, 2020 9:26 am|    Updated: April 26, 2020 9:26 am

An Images

নব্যেন্দু হাজরা: জুতো কিনলে মোজা ফ্রি, একটা জিনসের সঙ্গে আরেকটা জিনস ফ্রি। এমনকী খাসির মাংসের সঙ্গে পিঁয়াজ ফ্রিও খেয়েছে বাঙালি। কিন্তু সবজি কিনলে স্যানিটাইজার ফ্রি! নাঃ, এ বিজ্ঞাপন আগে চোখে পড়েনি আম গেরস্তের। কিন্তু লকডাউনের বাজারে এ অফারের খবর ঘুরে বেড়াচ্ছে এদিক ওদিক। টাটকা সবজির হোম ডেলিভারি। চাইলে ডাল, তেল বিস্কুটের প্যাকেটের মতো নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসও। আর ৫০০ টাকার কেনাকাটা করলেও ৫০ এমএল হ্যান্ড স্যানিটাইজার ফ্রি। আম গেরস্তের সমস্যা মেটাতে চালু হয়েছে নয়া পরিষেবা। শুরু করছেন পাঁশকুড়ার কৃষকরাই। কোলাঘাট, মেচেদা এবং পাঁশকুড়ায় এই ডেলিভারি আপাতত শুরু হয়েছে। রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে পুজোর ফুলেরও হোম ডেলিভারি।

লকডাউনের মধ্যেই টাটকা সবজি হোম ডেলিভারি শুরু হয়েছে। করোনার বাজারে সবজি বা নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস কিনে স্যানিটাইজার পেয়ে স্বভাবতই সাধারণ মানুষও বেশ খুশি। সেই লোভে অর্ডারও দিচ্ছেন অনেকে। হোম ডেলিভারির জন্য স্থানীয় কৃষকরাই একটি সংস্থা খুলে ফোন নম্বর দিয়ে বিজ্ঞাপন করেছে। কৃষকরা জানাচ্ছেন, একেবারে খেতের সবজি তাঁরা বাড়ি পৌঁছে দেন বাজারদরেই। তাঁদের দেওয়া নম্বরে ফোন করলে বাইকে করে পৌঁছে দিয়ে আসা হচ্ছে। যেহেতু লকডাউনের জেরে সাধারণ মানুষ বাইরে বেরোতে পারছেন না। তাই এই উদ্যোগ । এদিকে সাধারণ মানুষ বাইরে না বেরোলে কৃষকদের ফসলও বিক্রি হবে না। ফলে হোম ডেলিভারি যথেষ্টই জনপ্রিয় হয়েছে দিনকয়েকে।

[আরও পড়ুন: সকাল থেকেই রোদ-মেঘের লুকোচুরি, মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজ্যে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা]

জনাপাঁচেক ছেলে তা বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, যেহেতু স্যানিটাইজার অনেক জায়গাতেই পাওয়া যাচ্ছে না, তাই তাঁরা এটা বিনামূল্যে দিচ্ছেন যাতে লোকের উপকার হয়। তবে ফুলের ভাবনাটা নতুন। এটা রবিবার থেকেই শুরু হবে। এখন সর্বত্র সোশ্যাল ডিসট্যান্স মেনটেন করা হচ্ছে, তাই ফুলের দোকানেও অনেকে যাচ্ছেন না। ফুল পচে যাচ্ছে। তাঁদের জন্যই বাড়ি বাড়ি ফুল-বেলপাতাও দিয়ে আসার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। প্যাকেট করা হয়েছে ছোট ছোট। কোনও সংক্রমণের সম্ভাবনাও নেই বলেই জানানো হয়েছে। কোলাঘাট, মেচেদা এবং পাঁশকুড়া এলাকায় এই সবজি এবং ফুল সরবরাহ করা হবে। মেচেদায় একটা দোকান রয়েছে। সেখান থেকেই মূল এই সরবরাহের কাজ চালানো হচ্ছে। এই কাজের মূল উদ্যোক্তা মলয় পাড়ুই বলেন, “লকডাউনের মধ্যে ফোনে অর্ডার করলে বাড়ি বাড়ি সবজি দিয়ে আসছি। ৫০০ টাকার কেনাকাটায় ফ্রিতে স্যানিটাইজারও দেওয়া হচ্ছে। আর এবার বাড়ি বাড়ি ফুলও দিয়ে আসা হবে। যে যেমন অর্ডার দেবেন সেই হিসেবে।”

[আরও পড়ুন: মিড-ডে মিলের সঙ্গে স্কুলপড়ুয়াদের বিস্কুট-সাবান দেওয়ায় ভৎর্সনা! প্রধান শিক্ষককে শোকজ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement