Advertisement
Advertisement
Lok Sabha 2024

ইস্যু মুসলিম সংরক্ষণ, ঝাড়গ্রামের সভায় পুরোপুরি মেরুকরণের পথে মোদি, তোপ সংবাদমাধ্যমকেও

মোদি অভিযোগ করলেন, ইন্ডিয়া জোট ক্ষমতায় এলে আদিবাসী, অবিসিদের সংরক্ষণ কেড়ে নিয়ে সেটা দেওয়া হবে মুসলমানদের।

Lok Sabha 2024: PM Modi alleges Congress of snatching SC-ST reservation

ফাইল ছবি।

Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:May 20, 2024 5:05 pm
  • Updated:May 20, 2024 6:49 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটে (Lok Sabha 2024) মেরুকরণের চেষ্টাটা প্রধানমন্ত্রী শুরু করেছিলেন দ্বিতীয় দফার পর থেকেই। পঞ্চম দফা ভোট আসতে আসতে মেরুকরণই যেন প্রধানমন্ত্রীর সিঙ্গল পয়েন্ট এজেন্ডা। ঝাড়গ্রামে দাঁড়িয়ে সংরক্ষণ ইস্যুকে হাতিয়ার করে রাজ্যে হিন্দু-মুসলমান মেরুকরণের মরিয়া চেষ্টা করলেন মোদি। অভিযোগ করলেন, ইন্ডিয়া জোট ক্ষমতায় এলে আদিবাসী, ওবিসিদের সংরক্ষণ কেড়ে নিয়ে সেটা দেওয়া হবে মুসলমানদের।

কংগ্রেস তফসিলি জাতি, উপজাতিদের সংরক্ষণ কেড়ে নিয়ে মুসলমানদের দেবে, সেই অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই করে আসছেন মোদি। এদিন সেই অভিযোগের স্বপক্ষে যুক্তি দিতে রাহুল গান্ধীর ‘১০-১১ বছরের পুরনো ভিডিও’-কে হাতিয়ার করলেন প্রধানমন্ত্রী। মোদি (Narendra Modi) এদিন দাবি করলেন, “১০-১১ বছর আগে কংগ্রেসের শেহজাদা স্পষ্ট বলেছিলেন, কংগ্রেস (Congress) মুসলমানদের সংরক্ষণ দেবে। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বারবার বলতেন দেশের সম্পদে প্রথম অধিকার মুসলমানদের। তাহলে বলুন, ওরা মুসলমানদের সংরক্ষণ দেবে কিনা!” এর পরই সমবেত জনতাকে প্রধানমন্ত্রীর প্রশ্ন, “আপনারা কি আপনাদের সংরক্ষণের অধিকার ছেড়ে দিতে রাজি?”

Advertisement

[আরও পড়ুন: CCTV ফুটেজ বাজেয়াপ্তর পর এবার স্বাতীর পোশাক পাঠানো হল ফরেনসিক তদন্তে]

প্রধানমন্ত্রী এদিন একই সুরে বাংলার শাসকদলকেও আক্রমণ শানিয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, “রাজ্যের তৃণমূল (TMC) নেতারা রামমন্দিরকে অপবিত্র বলেন। রামমন্দিরকে ওদের অপবিত্র মনে হয়। বাংলায় রামনবমীর মিছিলে হামলা চালানো হয়।” ভারত সেবাশ্রম সংঘ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যকেও এদিন মোদি হাতিয়ার করেছেন হিন্দুদের ভাবাবেগ উসকে দিতে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: তাজমহলের পাশে মসজিদের ভিতর থেকে উদ্ধার যুবতীর অর্ধনগ্ন দেহ, ছড়াল তীব্র চাঞ্চল্য]

এখানেই শেষ নয়, সম্ভবত প্রথমবার প্রধানমন্ত্রী আক্রমণ করেছেন সংবাদমাধ্যমকেও। মোদির দাবি, দেশের বিরোধীরা আদ্যপান্ত সাম্প্রদায়িক এবং জাতপাতের রাজনীতি করে। সংবাদমাধ্যম এতদিন ধরে তাঁদের আড়াল করে রেখেছে। তাঁদের আসল মুখটা দেখতে দেয়নি। সেই সব সংবাদমাধ্যমেরও লজ্জিত হওয়া উচিত।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ