Advertisement
Advertisement
Abhishek Banerjee

উন্নয়ন স্তব্ধ করতে চাইলে ‘মুখে ঝামা’, সবচেয়ে বড় ব্যবধানে ডায়মন্ড হারবার জয়ের চ্যালেঞ্জ অভিষেকের

'আগামী ১০ বছরে আরও দশ হাজার কোটি টাকার উন্নয়নের কাজ হবে', সাতগাছিয়ার জনসভা থেকে প্রতিশ্রুতি তৃণমূল প্রার্থীর।

Lok Sabha Election 2024: Abhishek Banerjee challenges to win in record difference from Diamond Harbour
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 23, 2024 9:36 pm
  • Updated:May 23, 2024 9:43 pm

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: একদিনে তিন জনসভা। বৃহস্পতিবার ভাঙড়, সংগ্রামপুরের পর নিজের কেন্দ্র ডায়মন্ড হারবার লোকসভা অধীন সাতগাছিয়া বিধানসভার বিদ্যানগরে নির্বাচনী প্রচার সারলেন এই কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তথা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এখান থেকে নিজের জয় নিয়ে বিজেপিকে বড়সড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন ডায়মন্ড হারবারের তৃণমূল প্রার্থী। বললেন, ”আমাকে বিরোধীরা এখান থেকে হঠাবে বলছে। অত সোজা? আরে, চেনা বামুনের পৈতে লাগে না। ডায়মন্ড হারবারের মানুষের হৃদয়ে আমি। ডায়মন্ড হারবারের উন্নয়নে ৫৫৮০ কোটি টাকার কাজ করেছি। আগামী ১০ বছরে আরও দশ হাজার কোটি টাকার উন্নয়নের কাজ হবে। যারা ডায়মন্ড হারবারের উন্নয়নের কর্মযজ্ঞকে স্তব্ধ করতে চায়, তাদের মুখে ঝামা ঘষে দিন।”

বিজেপির (BJP) উদ্দেশে তাঁর আরও হুঁশিয়ারি, ”আমাকে ধমকাবে চমকাবে, আমার বাবা-মা, স্ত্রীকে বারবার ইডি, সিবিআই দিয়ে হেনস্তা করবে! তোমাদের শেষ দেখে ছাড়ব। মোদি সরকারের বিদায় আসন্ন। চার তারিখ বিজেপি চোখে সরষে ফুল দেখবে। দিল্লিতে ক্ষমতায় বসবে গণতান্ত্রিক, ধর্মনিরপেক্ষ সরকার যার নির্ণায়ক শক্তি হবে এই বাংলার মানুষ।” এদিনের সভায় সিপিএমকেও (CPM) নিশানা করেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়(Abhishek Banerjee)। বলেন, ”বামেরা ৩৪ বছর আর মোদির সরকার ১০ বছরে ডায়মন্ড হারবারের উন্নয়নের জন্য কী করেছে, আর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ১৩ বছরের সরকার আর আমার দশ বছরের সাংসদ থাকাকালীন সময়ে ডায়মন্ড হারবারের (Diamond Harbour) কী উন্নয়ন হয়েছে তা নিয়ে আলোচনায় আসুন। ল্যাজে-গোবরে করে ছাড়ব। নারীশক্তি, মাতৃশক্তি, যুবশক্তি আমার সঙ্গে আছে। কোনও ষড়যন্ত্রই রুখতে পারবে না। যতদিন যাচ্ছে তৃণমূলের জনসমর্থন বাড়ছে।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘আমার জন্ম জৈবিক প্রক্রিয়ায় নয়’, মোদির মন্তব্যে মমতার পালটা, ‘আমাদের তো মা-বাবা আছে’]

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আরও বক্তব্য, ”অসমের মুখ্যমন্ত্রী যদি অসম ছেড়ে বাংলায় এসে বসে থাকেন, তাহলেও এবার আমার চার লক্ষ ভোটে জয়ের ব্যবধান কমাতে পারবেন না। কারণ আমি রাজনীতি করি না, মানব ধর্মে বিশ্বাস করি। সম্প্রতি বড় কাছারিতে ৭৩ টি দোকান আগুনে ভস্মীভূত হয়। বিজেপির প্রার্থী এসে রাজনীতি করে গিয়েছে। আমি ওই পরিবারগুলির পাশে দাঁড়িয়েছি। আমার বিশ্বাস, লোকসভা ভোটে (Lok Sabha Election 2024) সবচেয়ে বেশি ভোটে জয়ের ব্যবধানের নিরিখে এবার রাজ্যের মধ্যে এক নম্বরে থাকবে ডায়মন্ড হারবার।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: হানিট্র্যাপের শিকার বাংলাদেশের সাংসদ! নিউটাউনের ফ্ল্যাটে ডেকেছিল ষড়যন্ত্রকারীর ‘বান্ধবী’ই]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ