BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

মেরিন ড্রাইভ, মেরিনা বিচের আদলে শিলিগুড়িতে মহানন্দা ড্রাইভওয়ে

Published by: Bishakha Pal |    Posted: February 11, 2019 7:52 pm|    Updated: February 11, 2019 7:53 pm

An Images

সংগ্রাম সিংহরায়, শিলিগুড়ি: মুম্বাইয়ের মেরিন ড্রাইভের সুখ্যাতি বিশ্বজুড়ে। সমুদ্রের ধার দিয়ে লম্বা রাস্তায় ভোরে উঠে ফেরারি চালাতে পছন্দ করেন স্বয়ং শচীন তেণ্ডুলকর। আবার চেন্নাইয়ের মেরিনা বিচ পাল্লা দেয় দেশ-বিদেশের সঙ্গে। এসব তো সবারই জানা, কিন্তু এই দুই সমুদ্র তটের ‘মকটেল’ ক্ষুদ্র সংস্করণ যদি হাতের কাছেই এ রাজ্যের কোথাও  মেলে, তাহলে কেমন হয়? খুব দ্রুত সেই অভূতপূর্ব সুযোগ করে দিতে চলেছে শিলিগুড়ি পুরনিগম। তবে সমুদ্রের পরিবর্তে এখানে মিলবে নদীতট। এই দুই বিশ্ব বিখ্যাত ‘বিচ’–এর আদলে গড়ে তুলতে চাইছে তারা।

শিলিগুড়ি মহানন্দা নদীর পারে কয়েকশো মিটার নদীতট পরিষ্কার করে সেখানে তৈরি হচ্ছে ‘মহানন্দা ড্রাইভওয়ে’। এমন পরিকল্পনার কথা প্রকাশ করেছেন শিলিগুড়ি পুরনিগমের উদ্যানপালন বিভাগের মেয়র পরিষদ কমল আগরওয়াল। তাঁর নিজের এলাকা শিলিগুড়ি পুরনিগমের দশ নম্বর ওয়ার্ডের সূর্যসেন পার্কের পাশে কয়েকশো মিটার মহানন্দার পাড় পরিষ্কার করে সেখানে শহরবাসীর মনোরঞ্জনের জন্য এই পরিকল্পনা করছেন তাঁরা। পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করা হচ্ছে দ্রুততার সঙ্গে। পুরনিগমের বোর্ড মিটিংয়ে তা অনুমোদন আদায়  করে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বিধায়ক খুনের প্রতিবাদে রেল অবরোধ মতুয়াদের, বিপাকে নিত্যযাত্রীরা ]

কী থাকবে সেখানে? মেয়র পারিষদ জানালেন, মুম্বই এবং চেন্নাইয়ের সমুদ্র পাড়ের মতো যেহেতু অত বিস্তীর্ণ নয়, তাই এখানে গোটা পরিকল্পনা করতে হচ্ছে অনেকটা ‘বনসাই’ এর আদলে। মেরিন ড্রাইভে যেমন গাড়ি চালানোর বন্দোবস্ত করার স্বাধীনতা থাকছে, এখানে তার বদলে সাইকেল চালানোর ব্যবস্থা করা হবে। তবে তা পুরোটাই হবে মনোরঞ্জন ভিত্তিক। সরাসরি প্রধান সড়কের সঙ্গে এর কোনও যোগাযোগ থাকবে না। তাতে বিকেলে কচিকাঁচাদের নিয়ে দু’দণ্ড হাঁফ ছেড়ে বাঁচতে পারবেন শহরবাসী। শহরের মানুষ সমুদ্র পাড়ে যে রকম ক্যাফেটেরিয়া, ফেরিওয়ালা, রেস্তোরাঁ, পাবের আনন্দ উপভোগ করেন, এখানেও  তেমনি বেশ কিছু স্টল তৈরি করে তা টেন্ডার ডেকে বিতরণ করা হবে। পাশাপাশি সুদৃশ্য বেঞ্চ এবং ছাতা লাগিয়ে দেওয়া হবে এলাকাজুড়ে। তাদের আশা, খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা লাভ করবে ‘মহানন্দা ড্রাইভওয়ে’। পুরনিগমের আশা, শুধুমাত্র বিনোদন নয় এর পাশাপাশি সুদূরপ্রসারী প্রভাব রয়েছে এলাকায়, এমন পদক্ষেপ করার। এতে ভবিষ্যতে শিলিগুড়িতে যেভাবে জবরদখলের প্রবণতা রয়েছে, তা একেবারেই বন্ধ হয়ে যাবে ওই এলাকায়। সেইসঙ্গে রক্ষণাবেক্ষণ নির্মিত হলে পাড় ভাঙার ভয় থাকবে না ভবিষ্যতে।

বাঙালির গোটা সেদ্ধর পাতে হিট খাদানের জায়ান্ট রুই-কাতলা ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement