৮ ভাদ্র  ১৪২৬  সোমবার ২৬ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

চন্দ্রজিৎ মজুমদার, কান্দি: সরস্বতী পুজোতে তারস্বরে মাইক বাজানো নিয়ে আপত্তি তুলেছিলেন। মুর্শিদাবাদের খড়গ্রামে প্রতিবাদীকে পিটিয়ে মেরে ফেলল দুষ্কৃতীরা। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

[অপহরণের গল্প ফেঁদে উধাও পুরুলিয়ার ‘নিখোঁজ’ বিজেপি নেতা!]

ঘড়ির কাটায় রাত দশটা পেরিয়ে গিয়েছে। খড়গ্রামের গাফুল গ্রামে সরস্বতী পুজোয় তখনও তারস্বরে মাইক বাজছে। প্রতিবাদ করেছিলেন হরিধন মাল নামে গ্রামেরই বৃদ্ধ। অভিযোগ, রীতিমতো বাঁশ-লাঠি নিয়ে তাঁর উপর চড়াও হয় পুজোর উদ্যোক্তারা। ওই বৃদ্ধের চিৎকারে ছুটে আসেন গ্রামের অন্যন্য বাসিন্দাদের। দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সংঘর্ষ চলাকালীন হারাধন মালের মাথায় বাঁশ দিয়ে আঘাত করে দুষ্কৃতীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় খড়গ্রাম প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। শারীরিক অবস্থায় অবনতি হওয়ার রাতেই হারাধনবাবুকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় কান্দি মহকুমা হাসপাতালে। কিন্তু, শেষরক্ষা হয়নি। হাসপাতালে ভরতি হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই মারা যান বছর ষাটেকের ওই বৃদ্ধ। ঘটনায় শোকের ছায়া খড়গ্রামের গাফুল গ্রামে।

সরস্বতী পুজোই হোক কিংবা অন্য অনুষ্ঠান, রাজ্যের সর্বত্রই এখন তারস্বরে মাইক কিংবা ডিজে বাজানোর প্রবণতা বাড়ছে। আইন অনুযায়ী, রাত দশটার পর  মাইক বা ডিজে বাজানো নিষিদ্ধ। কিন্ত, সে নিয়ম আর মানছে কে! বরং রাত বাড়লেই যেন শব্দের দাপট আরও বেড়ে যায়। বিপাকে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। বিকট শব্দে অসুস্থ হয়ে পড়েন বয়স্ক ব্যক্তিরা।  

[ একই যুবতীর সঙ্গে প্রেম, বর্ধমানে আত্মঘাতী কাকা-ভাইপ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং