২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বুধবার ৮ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

৬০ ফুট উঁচু বিদ্যুতের পোল থেকে পড়ে জখম মানসিক ভারসাম্যহীন যুবক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 1, 2018 6:37 pm|    Updated: July 1, 2018 6:37 pm

Man fall from a 60-foot-high electricity poll, is injured

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: উচ্চ ক্ষমতা বিদ্যুৎবাহী পোলে উঠে পড়া ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে গিয়ে বিপত্তি ঘটল অন্ডালে৷ টানা প্রায় ২৪ ঘণ্টা পোলের ৬০ ফুট উচ্চতায় বসে থাকার পর রবিবার নামাতে গিয়েই এই যুবক সোজা নিচে পড়ে যান৷ তাঁকে গুরুতর আহত অবস্থায় দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করে পুলিশ৷

অন্ডালের বাবুইশোল গ্রামে শনিবার বিকাল চারটে নাগাদ ৩৩ হাজার বিদ্যুতের পোলে উঠে পড়েন মানসিক ভারসাম্যহীন এক যুবক৷ স্থানীয় বাসিন্দারা দেখতে পেয়ে খবর দেয় পুলিশ ও বিদ্যুৎ বিভাগকে৷ শনিবার রাতভর চেষ্টা করেও ওই ব্যক্তিকে পোল থেকে নামানো যায়নি৷ রবিবার ভোর থেকে ফের চেষ্টা শুরু করে পুলিশ, দমকল ও বিদ্যুৎ দপ্তরের কর্মীরা৷ ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করতে পোলে উঠতে গেলেই তিনি আরও উপরে উঠে যান৷ উপরে হাই ভোল্টেজ বিদ্যুতের সংস্পর্শে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার আশঙ্কায় নেমে আসে উদ্ধারকারী দল৷

পথ কুকুরের সেবায় মগ্ন মুর্শিদাবাদের জেলাশাসকের স্ত্রী ]

এরপরই দমকল লম্বা সিড়ি নিয়ে আসে উদ্ধারের জন্য৷ বিদ্যুৎ দপ্তর ওই পোলের বিদ্যুৎ সংযোগও ছিন্ন করে দেয়৷ নিচে পাতা হয় ত্রিপল৷ দুপুর দুটোর পর আবার চেষ্টা শুরু হয়৷ আর তারপরই এই বিপত্তি৷ দমকলের সিড়ি বেয়ে স্থানীয় এক যুবক উপরে উঠে তাঁকে উদ্ধারের চেষ্টা শুরু করে৷ ওই ব্যক্তির কাছে পৌঁছে তার কোমরে দড়ি পড়িয়েও দেয় দমকল ও স্থানীয় ওই যুবক৷ কিন্তু সেই দড়ি খুলে দেন ওই ব্যক্তি৷ পোল থেকে ঝুলে পড়েন তিনি৷ কিন্তু বেশিক্ষণ ঝুলতে পারেনি৷ টানা পোলের উপর বলে থাকার জন্যেই শারীরিক দুর্বলতার কারণেই ভারসাম্য হারিয়ে সটান ত্রিপলে পড়ে যান৷ পড়ার সময় একাধিকবার পোলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে তাঁর৷ গুরুতর জখম অবস্থায় তাঁকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করে পুলিশ৷

নদিয়ায় ট্যারান্টুলা আতঙ্কে কাঁটা সাধারণ মানুষ ]

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মনু সিং নামের এই ব্যক্তির বাড়ি আসামে৷ ট্রেনে করে চেন্নাই যাচ্ছিলেন তিনি৷ সঙ্গীদের সঙ্গে বিবাদের জেরেই সে ট্রেন থেকে অন্ডালে নেমে পড়ে৷ শনিবার অন্ডালের বাবুইশোলে উদ্দেশ্যহীনভাবে ঘুরতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁকে দুপুরে খেতে দেন৷ তাঁকে বাড়ি ফেরার জন্যে ট্রেনের টিকিটও কেটে দেন৷ স্থানীয় বাসিন্দা সোনা বাউরি জানান, “দুপুরে ওই অচেনা ব্যক্তিকে কাঁদতে দেখে আমরা তাঁকে খাইয়ে দাইয়ে ট্রেনের টিকিটও কেটে দিই৷ আমাদেরই একজনের বাড়িতে দুপুরের খাওয়ার খেয়ে একটু বাইরে যাচ্ছি বলে সে বেরিয়ে যায়৷” এরপরই সোজা ৩৩ হাজার ভোল্টের পোলে চড়েন মনু সিং৷ দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, মানসিক ভারসাম্যহীন এই যুবকের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত লেগেছে৷ তবে আশঙ্কার কোনও কারণ নেই৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে