২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় বাবাকে খুন করার অভিযোগ উঠল যুবকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম আকতার লস্কর। অভিযোগ, বহুদিন থেকেই সম্পত্তি নিয়ে বাবা ও ছেলের মধ্যে বিবাদ চলছিল। সোমবারও একই ঘটনা ঘটে। রাগে দিগবিদিক জ্ঞানশূন্য হয়ে বাবাকে মারধর শুরু করে লস্কর। মারের চোটে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। পরে তাঁর মৃত্যু হয়। ঘটনাটি ঘটেছে বারুইপুরে।

[ আরও পড়ুন: আলিপুরদুয়ারে বিরল প্রজাতির ছত্রাক-সহ গ্রেপ্তার ভুটানের তিন নাগরিক ]

স্থানীয়রা জানিয়েছে, আকতার লস্কর নামে ওই যুবক এমনিতেই রগচটা স্বভাবের মানুষ। তার উপর সম্পত্তি নিয়ে বহুদিন থেকেই বাবার উপর রেগে ছিল সে। সম্পত্তি নিয়ে প্রায়ই দু’জনের মধ্যে বিবাদ হত। সোমবার রাতেও সম্পত্তি নিয়ে বাবা ও ছেলের মধ্যে বচসা হয়। অভিযোগ, এদিন মদ্যপ অবস্থায় বাড়ি ঢুকেছিল আকতার। বাড়ি ঢুকেই বাবা ঈশা আলি লস্করের উপর অত্যাচার শুরু করে সে। ঘুমন্ত ঈশা আলি লস্করকে তাঁর দাড়ি ধরে টেনে তোলে ছেলে আকতার। সম্পত্তি তার নামে লিখে দেওয়ার জন্য জোর করতে থাকে। কিন্তু কোনওভাবেই সম্পত্তি ছেলে আকতার লস্করকে লিখে দিতে রাজি হচ্ছিলেন না ঈশা। তখন তাঁকে মারধোর করা হয় বলে অভিযোগ। বাবার বুকে এলোপাথাড়ি লাথি মারতে থাকে ছেলে আকতার। এমনই অভিযোগ তুলেছেন পরিবারের অন্য সদস্যরা। তারপরেই ঈশা আলি অসুস্থ বোধ করেন পড়েন। তাঁকে বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

[ আরও পড়ুন: চেনা ছন্দে মমতা! দিঘায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনসংযোগ মুখ্যমন্ত্রীর ]

হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরই ঈশা আলিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। এরপরই পরিবারের পক্ষ থেকে আকতার লস্করের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। বারুইপুর থানায় দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত আকতার লস্করকে গ্রেপ্তার করে বারুইপুর থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং