Advertisement
Advertisement
Weather

সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ, আগামী ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টির সম্ভাবনা কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের এই জেলাগুলিতে

বুধবার থেকেই বদলাচ্ছে আবহাওয়া।

MeT department predicts rain in south bengal in next 24 hour | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি।

Published by: Tiyasha Sarkar
  • Posted:April 20, 2022 9:19 am
  • Updated:April 20, 2022 10:57 am

নব্যেন্দু হাজরা: উত্তরে মাঝে মধ্যে বৃষ্টির দেখা মিললেও দক্ষিণে ঘর থেকে বেরতেই হাঁসফাঁস দশা। ভ্যাপসা গরমে নাজেহাল দক্ষিণবঙ্গবাসী। স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের প্রশ্ন, কবে দেখা মিলবে স্বস্তির বৃষ্টির। অবশেষে তাঁদের জন্য খুশির খবর। আজ অর্থাৎ বুধবার থেকেই বদলাতে শুরু করছে আবহাওয়া। বৃহস্পতিবার বৃষ্টিতে ভাসতে পারে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলা।

আবহাওয়া দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, ঝাড়খণ্ডের কাছে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হচ্ছে। তার জেরেই বুধবার থেকে বদলাবে আবহাওয়া। এদিন সকালেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে আকাশ ঢেকেছে কালো মেঘে। সঙ্গে রয়েছে ঝোড়ো হাওয়া। তবে বিকেলের দিকে বাড়বে হাওয়া। সম্ভাবনা রয়েছে কালবৈশাখীরও। আগামিকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হবে বৃষ্টি। কলকাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, কলকাতা, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া-সহ বিভিন্ন জেলা ভিজতে পারে বৃষ্টিতে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর (Regional Meteorological Centre) সূত্রে খবর, বিক্ষিপ্ত এই ঝড়বৃষ্টি চলবে শনিবার পর্যন্ত।

Advertisement
ফাইল ছবি।

[আরও পড়ুন: নারী সুরক্ষায় জোর, মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমতো দিঘায় তৈরি মহিলা পুলিশের স্কোয়াড]

এবছর কলকাতায় এখনও কালবৈশাখী হয়নি। তীব্র গরমে নাজেহাল অবস্থা বঙ্গবাসীর। মঙ্গলবারও বেশ কয়েকটি জেলায় তাপমাত্রা ছিল ৪০ ডিগ্রির উপরে। তবে উত্তরবঙ্গেও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে মঙ্গলবারও। আজও হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বিকেলে বর্জ্রবিদ্যুৎ -সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে দার্জিলিং, কালিম্পং, কোচবিহার এবং জলপাইগুড়ি জেলায়। এর সঙ্গে শিলাবৃষ্টিও হতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

Advertisement

উল্লেখ্য, গত রবিবার বিকেল থেকেই উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় শুরু হয়েছিল ঝোড়ো হাওয়া। কিছুক্ষণ পর থেকেই শুরু হয় বৃষ্টি। কোথাও ভারী, কোথাও মাঝারি। কোচবিহার, ফালাকাটা, ইটাহার-সহ বেশ কিছু জায়গায় শুরু হয় শিলাবৃষ্টি। ঝড়ের দাপটে এলোমেলো হয়ে গিয়েছিল বিস্তীর্ণ এলাকা। মৃত্যু হয়েছিল ২ জনের।

[আরও পড়ুন: তৃণমূলের ‘দুয়ারে সরকারে’র জন্যই আসানসোলে হার বিজেপির! ফের বেসুরো জিতেন্দ্র তিওয়ারি]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ