৬ ফাল্গুন  ১৪২৬  বুধবার ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সপ্তাহের শুরুতে ফের চড়ল তাপমাত্রার পারদ। সোমবার তাপমাত্রা ১৭ ডিগ্রি ছুঁইছুঁই। তবে আগামী দু-তিনদিনে ফের পারদ পতনের সম্ভাবনার ইঙ্গিত দিল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। সেক্ষেত্রে তাপমাত্রা কমে দাঁড়াতে পারে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মেঘলা আকাশ থাকলেও আপাতত আর বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলেই দাবি হাওয়া অফিসের।

চলতি বছরে যথেষ্ট খামখেয়ালি শীত। মাঝ ডিসেম্বরের সেভাবে জাঁকিয়ে শীতের পরশ পায়নি আমজনতা। বর্ষশেষে খুব কম সময়ের জন্য হাড়কাঁপানো শীতের দেখা পান বঙ্গবাসী। তবে মকর সংক্রান্তি যেতে না যেতেই বদলে গিয়েছে শীতের ছবি। ক্রমশই বাড়ছে তাপমাত্রার পারদ। ভোর এবং গভীর রাতে সামান্য ঠান্ডা বাড়লেও, দিনের বেলা গরম পোশাক গায়ে রাখা দায়। সোমবার ফের চড়ল তাপমাত্রার পারদ। ১ ডিগ্রি বেড়ে এদিন তাপমাত্রার পারদ প্রায় ১৭ ডিগ্রি ছুঁইছুঁই।

তবে কী মাঘেই রাজ্য থেকে বিদায় নিল শীত? লাখ টাকার এই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে শীতবিলাসীদের মনে। তবে তাঁদের জন্য রয়েছে সুখবর। কারণ আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী দু-তিনদিনে নামতে পারে কলকাতা-সহ রাজ্যের তাপমাত্রা। প্রায় ২-৩ ডিগ্রি পর্যন্ত কমতে পারে পারদ। আবারও তাপমাত্রার পারদ ছুঁতে পারে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের গণ্ডি। আপাতত বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলেই জানাচ্ছেন আবহবিদরা।

[আরও পড়ুন: সন্ধে নামতেই ভেসে আসছে বিকট আওয়াজ, অজানা জন্তুর আতঙ্কে কাঁটা শান্তিপুর]

কিন্তু কেন এত উষ্ণ মাঘের মুখোমুখি হতে হচ্ছে রাজ্যবাসীকে? আবহবিদদের দাবি, আসলে সূর্যের উত্তরায়ণের কারণেই এক ধাক্কায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা বেড়েই চলেছে। যার ফলে রীতিমতো ঘামতে হচ্ছে দিনের বেলায়। খানিকটা তাপমাত্রা কমায় বেশি রাতে কিছুটা শীত মালুম হচ্ছে। তবে তা সামান্য। মাঘের গোড়ায় ঠান্ডার যে ছোবল থাকার কথা, এবার তার ছিটেফোঁটাও নেই। যে কারণে গায়ে গরম পোশাক রাখা দায়। পরপর পশ্চিমি ঝঞ্ঝা ঢোকায় উত্তুরে হাওয়া বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। সেই হাওয়া না ঢোকার কারণেই ঠান্ডা পড়ছে না। চলতি মাসের শেষেই সরস্বতী পুজো। সেই সময় শীতের রেশ কতটুকু থাকবে, উঠছে সেই প্রশ্ন। আপাতত আবহবিদদের অনুমান, বসন্তের আমেজেই রাজ্যে পলাশপ্রিয়ার আরাধনা করতে হবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং