BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

তর্পণ করতে গিয়ে দামোদরে তলিয়ে গেলেন মন্ত্রী মলয় ঘটকের দাদা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 19, 2017 2:16 pm|    Updated: September 19, 2017 2:21 pm

Minister Moloy Ghatak's brother sink in Damodar

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: মহালয়ার দিন পিতৃতর্পণ করতে গিয়ে দামোদরের চোরাস্রোতে তলিয়ে গেলেন মন্ত্রী মলয় ঘটকের দাদা অসীম ঘটক। দিনভর তল্লাশি চালিয়েও তাঁর সন্ধান পাননি দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা দলের সদস্যরা। অসীমবাবু পেশায় আইনজীবী। দীর্ঘদিন ধরে আসানসোল আদালতে প্র্যাকটিস করেন তিনি।

moloy1_web

প্রতিবছরই মহালয়ার দিন আসানসোলে দামোদর ব্রিজের নিচে ভূতাবুড়ি মন্দির সংলগ্ন ঘাটে তপর্ণ করেন বহু মানুষ। মঙ্গলবার দুপুর পৌনে তিনটে নাগাদ সেখানে তর্পণ করতে গিয়েছিলেন অসীমবাবু। ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী বীরেন মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, দুর্ঘটনার সময়ে অসীম ঘটক-সহ তিনজন তর্পণ করছিলেন। তর্পণের পর বাকিরা ঘাটে উঠে এলেও, অসীমবাবু জলেই ছিলেন। আচমকাই চোরাস্রোতের টানে তলিয়ে যান তিনি। ওই প্রত্যক্ষদর্শীর দাবি, তিনি নিজেও দামোদরে চোরাস্রোতে তলিয়ে যাচ্ছিলেন। স্থানীয়দের তৎপরতায় কোনওমতে রক্ষা পান। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি, বিধায়ক তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়, মেয়র পারিষদ ও অসীম ঘটকের ভাই অভিজিৎ ঘটক। আসে দমকল ও বিপর্যয় মোকাবিলা দলও। শুরু হয় তল্লাশি। কিন্ত, মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত অসীম ঘটকের সন্ধান মেলেনি।

[ফের ঘাতক সেলফি, ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু ছাত্রের]

খোদ মন্ত্রীর দাদা দামোদর নদে তলিয়ে যাওয়ার ঘটনায় স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের ভুমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, ভূতাবুড়ি মন্দির সংলগ্ন ঘাটটি বিপজ্জনক। এর আগেও এই ঘাটে অনেকেই তলিয়ে গিয়েছেন। অথচ মহালয়ার দিনে এই ঘাটে সতর্কতামূলক কোনও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। তার জেরে এই দুর্ঘটনা।

[২০০ বছর ধরে পুজোয় মুসলিম ফকিরদের অন্নদান করছে এই হিন্দু পরিবার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে