২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘মাথার উপর ক্যাপ্টেন আছেন, বাংলা জিতবেই’, আমফান বিধ্বস্ত বসিরহাট ঘুরে মন্তব্য শুভেন্দুর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: June 4, 2020 8:32 pm|    Updated: June 4, 2020 8:34 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বসিরহাট: “মাথার উপর আমাদের ক্যাপ্টেন আছেন, প্রকৃতির সঙ্গে লড়াই করে বাংলা জিতবেই”, আমফানে বিধ্বস্ত বসিরহাটের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শনের পর এভাবেই ক্ষতিগ্রস্তদের মনোবল জোগালেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। এই সংকটকালে মন্ত্রীকে পাশে পেয়ে খানিকটা আশ্বস্ত বসিরহাটবাসী। 

ঘূর্ণিঝড় আমফানের তাণ্ডবে কার্যত লণ্ডভণ্ড হয়ে গিয়েছে বসিরহাটের অধিকাংশ এলাকা। সন্দেশখালি ও হিঙ্গলগঞ্জের বহু এলাকা এখনও জলের তলায়। এই পরিস্থিতিতেই বৃহস্পতিবার সন্দেশখালির বিধায়ক সুকুমার মাহাতো, উত্তর ২৪ পরগনার জেলা পরিষদের সদস্য শিবপ্রসাদ হাজরা-সহ সেচ দপ্তরের আধিকারিকদের সঙ্গে নিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত বসিরহাট পরিদর্শন করলেন পরিবহণমন্ত্রী। এদিন সকালে হেলিকপ্টারে সন্দেশখালির সরবেড়িয়া ফুটবল মাঠে নামেন তিনি। সেখান থেকে সড়কপথে যান ধামাখালিতে। লঞ্চে চড়ে ছোট কলাগাছি, বড় কলাগাছি-সহ বিভিন্ন এলাকার বাঁধের কাজ খতিয়ে দেখেন। কথাও বলেন ক্ষতিগ্রস্তদের সঙ্গে।

subhendu-1

[আরও পড়ুন: বাড়ির গেটম্যান করোনা পজিটিভ, কোয়ারেন্টাইনে সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবার]

পরিদর্শন শেষে এদিন পরিবহণ মন্ত্রী বলেন, “পূর্ণিমার ভরা কোটাল শুরু হয়ে গিয়েছে। তাই প্রকৃতির সঙ্গে লড়াই করে আগামী দিনে মানুষকে বেঁচে থাকতে হবে। বসিরহাট মহকুমায় ১৪৯ টি নদীবাঁধের কাজ অস্থায়ীভাবে শুরু হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই কাজ শেষ হবে। সুন্দরবনকে বাঁচাতে বহু ম্যানগ্রোভ লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে।’ মুখ্যমন্ত্রীকে ক্যাপ্টেন সম্বোধন করে শুভেন্দু অধিকারী এদিন বলেন, “রাজ‍্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যেই বসিরহাটের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক সাহায্যের ব্যবস্থাও করেছেন। বাংলাকে স্বাভাবিক করতে যা প্রয়োজন সে লড়াই আমরা করছি। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে সব।”  

[আরও পড়ুন: হাওড়ার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে মিলছে না খাবার, প্রতিবাদে থালা হাতে রাস্তায় পরিযায়ীরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement