BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাখির বাজারেও রাজনৈতিক লড়াই, ‘দিদি’কে পিছনে ফেলে হিট ‘মোদি’

Published by: Bishakha Pal |    Posted: August 6, 2019 9:13 pm|    Updated: August 13, 2021 3:23 pm

Modi and Didi rakhi is huge hit at Katwa in Burdwan

ধীমান রায়, কাটোয়া: রাজনীতির আঙিনায় তাঁদের লড়াই সর্বজনবিদিত। মোদি বনাম দিদি। এই লড়াই এবার এসে পড়েছে রাখির বাজারেও। সপ্তাহ পার হলেই রাখি পূর্ণিমা। তার আগে পাইকারি বাজার থেকে রাখি কিনে এনে বিক্রির জন্য তৈরি কাটোয়ার ব্যবসায়ীরা। বাজারে এসেছে ‘মোদি-রাখি’ ও দিদি অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি লাগানো রাখি। তবে লোকসভা ভোটের ফলের প্রভাব পড়েছে রাখির বাজারেও। বস্তুত রাখি বিক্রেতাদের মতে এবছর রাখির বাজারে ‘দিদি রাখি’কে অনেকটাই পিছনে ফেলে দিয়েছে ‘মোদি-রাখি’। ইতিমধ্যেই ‘মোদি-রাখি’র চাহিদা তুঙ্গে।

[ আরও পড়ুন: ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচিতে ব্যতিক্রমী ছবি, তৃণমূল বিধায়ককে বরণ করে নিলেন গ্রামবাসীরা ]

রাখি পূর্ণিমায় ভাইয়ের হাতে বোন রাখি বেঁধে দেওয়ার রেওয়াজ। বিশ্বাস ভাইবোনের স্নেহ ভালবাসার বন্ধন তাতে অটুট থাকে। এই চিরাচরিত রেওয়াজ চলে এসেছে সর্বস্তরে। সৌভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রতির প্রতীক হিসাবে একে অপরের হাতে রাখি বেঁধে দেওয়ার প্রথা মেনে চলে রাজনৈতিক দলগুলিও। তাই ক্রমে ক্রমে বহুল পরিচিত রাজনৈতিক মুখগুলিও রাখিতে এখন শোভা পায়। বাজারে কচিকাঁচাদের কার্টুন রাখির পাশাপাশি নেতানেত্রীর ছবি দেওয়া রাখিরও প্রাধ্যান্য বেড়েছে।

কাটোয়া শহরের বেশ কয়েকটি প্রসাধনী সামগ্রী ও স্টেশনারী দোকানে প্রতিবছর রাখি উৎসবের মরশুমে রাখি বিক্রি করা হয়। এবছরেও তাঁরা প্রচুর রাখি তুলেছেন। কাচ ও পুঁতি দিয়ে সাবেকি ডিজাইনের তৈরি রাখির সঙ্গে ফেংসুই রাখি, কার্টুন রাখি তো রয়েছেই। তার সঙ্গে বাজারে এসেছে নরেন্দ্র মোদি ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া রাখি। তবে ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন গতবছর পর্যন্তও ‘মোদি-রাখি’র ততটা বাজার ছিল না। কিন্তু এবছরে বাজার মাতাচ্ছে মোদি-রাখি। কাটোয়া স্টেশন বাজারের এক ব্যবসায়ী অলোক দত্ত’র কথায়, “কলকাতা থেকে আমরা রাখি নিয়ে আসি। কলকাতায় রাখি আনতে গিয়ে দেখি মোদি রাখির বাজার তুঙ্গে। চাইলেও পাওয়া যাচ্ছে না। এবছর বাজার বুঝে তাই দিদি রাখির থেকে প্রায় চারগুণ মোদি রাখি নিয়ে এসেছি।” স্থানীয় ব্যবসায়ী প্রণব দাস, শিশির দাসেরা বলেন, “আমরা ব্যবসা করি। তাই খরিদ্দারদের চাহিদা অনুযায়ী মাল রাখতে হয়। এবছর মোদি-রাখির চাহিদা রয়েছে। অনেকে আগাম বলে যাওয়ায় একটু বেশি রাখি তোলা হয়েছে।”

[ আরও পড়ুন: ভুঁড়িওয়ালা গার্ড ইতিহাস, এবার স্মার্ট সিকিউরিটি পাচ্ছে ইসিএল ]

কাটোয়ার রাখি বিক্রেতারা জানিয়েছেন চাহিদার সাথে সাথে ‘মোদি-রাখি’র দামও ‘দিদি-রাখি’র থেকে বেশি। যেখানে মমতার ছবি দেওয়া রাখির দাম প্রতি পিস ১০ টাকা সেখানে মোদি রাখির দাম ১৫ টাকা। মাপে একই হলেও চাহিদা অনুযায়ী ‘মোদি-রাখি’ দামেও এগিয়ে রয়েছে ‘দিদি-রাখি’র চেয়ে।

ছবি: জয়ন্ত দাস।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে