৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায় ও নবেন্দু ঘোষ: সন্দেশখালি কাণ্ডে আবারও মুকুল রায়ের নিশানায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এবার সরাসরি তৃণমূল সুপ্রিমোকে ‘খুনি’ বলে তোপ দাগলেন তিনি৷ দাবি তুললেন, মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করার৷ অভিযোগ করলেন, মুখ্যমন্ত্রীর উসকানিতেই শনিবার বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালানো হয়েছে৷ দুই বিজেপি কর্মীর খুনে মদত দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

[ আরও পড়ুন: তাড়াতে পারলে বুঝব দম আছে’, দলের বিরুদ্ধে ফের হুঁশিয়ারি সব্যসাচীর]

মঙ্গলবার রাজ্য বিজেপির সদর দপ্তরে মুকুল রায় অভিযোগ করেন, মমতার প্ররোচনায় সন্দেশখালিতে হামলা চলেছে৷ বিজেপি কর্মীদের উপর এলোপাথাড়ি গুলি চালানো হয়েছে৷ মুখ্যমন্ত্রী ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বুঝে নেওয়ার যে হুমকি দিয়েছিলেন, এটা তারই প্রতিফলন৷ এদিন সন্দেশখালি কাণ্ডে মৃত দুই বিজেপি কর্মী সুকান্ত মণ্ডল ও প্রদীপ মণ্ডলের এবং নিখোঁজ দেবব্রত মণ্ডলের বাড়িতে যান মুকুল রায়৷ কথা বলেন তাঁদের বাড়ির সদস্যদের সঙ্গে৷ সেখানেই আবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে একরাশ ক্ষোভ উগরে দেন বিজেপি নেতা৷ অভিযোগ করেন, শনিবার দুপুরে সন্দেশখালিতে যে ঘটনা ঘটেছে, তা কোনও সংঘর্ষ নয়৷ বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করা হয়েছে বিজেপি কর্মী প্রদীপ মণ্ডল ও সুকান্ত মণ্ডলকে৷ এখনও নিখোঁজ দেবদাস মণ্ডল ও শংকর মণ্ডল-সহ আরও এক৷ পুরো ঘটনাই ঘটেছে স্থানীয় তৃণমূল নেতা শেখ শাহজাহানের নেতৃত্বে৷ এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উসকানিতে৷ তিনি দাবি জানান, এই ঘটনায় উসকানি দেওয়ার অভিযোগে এখনই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হওয়া উচিত৷

[ আরও পড়ুন: আমার গলা কেটে দিলেও কাজ করব’, বিদ্যাসাগরের মূর্তিস্থাপন মঞ্চে চ্যালেঞ্জ মমতার ]

জানা গিয়েছে, এদিন রাজনৈতিক সংঘর্ষে মৃত দুই বিজেপি কর্মীর শ্রাদ্ধানুষ্ঠান যোগ দেন মুকুল রায়৷ কথা বলেন সুশান্ত মণ্ডল ও প্রদীপ মণ্ডলের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে৷ মৃত সুশান্তর বোন বিভা মণ্ডল বিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী৷ পরীক্ষা চলছে তাঁর৷ সেই সময় পরিবারের একমাত্র রোজগেরে সদস্য অর্থাৎ তাঁর দাদার মৃত্যুতে, স্বভাবতই মাথায় ছাদ ভেঙে পড়েছে৷ একই অবস্থা প্রদীপের পরিবারেরও৷ তাঁরও দুই ছেলে রয়েছে৷ তাঁদেরও ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তায় পড়েছে পরিবার৷ সূত্রের খবর, বিভা ও প্রদীপ মণ্ডলের দুই ছেলের পড়াশোনার যাবতীয় খরচ চালানোর আশ্বাস দিয়েছেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় বিভার৷ এদিন বিজেপি নেতার কাছে দোষীদের ফাঁসির দাবিতে সরব হতে দেখা গিয়েছে মৃতের পরিবারের সদস্যদের৷ যথাযথ নিরাপত্তার দাবিতেও সরব হয়েছেন তাঁরা৷ প্রদীপ মণ্ডল ও সুশান্ত মণ্ডলের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা হলেও, দেবব্রত মণ্ডলের পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়নি মুকুল রায়ের৷ স্থানীয়দের অভিযোগ, ঘটনার পর থেকেই শাসকদলের হুমকির জেরে তাঁরা ঘরছাড়া৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং