৭ শ্রাবণ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাধ্যমিকের খাতা দেখার জন্য এবার থেকে আর টাকা লাগবে না। তবে পরীক্ষার্থীরা যদি খাতা বাড়ি নিয়ে যেতে চায়, তাহলে প্রতি পাতার জন্য দু’টাকা করে দিতে হবে। বৃহস্পতিবার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে একথা জানাল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।

[আরও পড়ুন:বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে মগ্ন কর্মীরা, হাসপাতাল থেকে গায়েব রোগীর কাটা আঙুল]

পড়ুয়াদের কথা মাথায় রেখে মাধ্যমিকে মূল্যায়ণ পদ্ধতিতে বদল এনেছে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। ফলে পরীক্ষায় পাসের হার যেমন বেড়েছে, তেমনি আগের তুলনায় অনেক বেশি নম্বরও পাচ্ছে পড়ুয়ারা। এবছর মাধ্যমিকে পাস করেছে শতকরা ৮৬ শতাংশ পরীক্ষার্থী। ৯৯ শতাংশ নম্বর পেয়ে প্রথম পূর্ব মেদিনীপুরের সৌগত দাস। কিন্তু প্রতিযোগিতার বাজারে মাধ্যমিকে প্রাপ্ত নম্বরে যদি কোনও পরীক্ষার্থী খুশি না হয়, তাহলে? সেক্ষেত্রে সরাসরি মধ্যশিক্ষা পর্ষদের খাতা দেখতে চেয়ে বা পুনর্মল্যায়ণের আবেদন করার সুযোগ নেই। জানা গিয়েছে, যদি পরীক্ষার্থী মনে করে, মাধ্যমিকে সে যা নম্বর পেয়েছে, তার থেকে বেশি নম্বর পাওয়া উচিত ছিল। সেক্ষেত্রে তথ্য জানার অধিকার আইনে খাতা দেখতে চেয়ে আবেদন করা যায়। তবে খাতার জন্য পর্ষদের কাছে ১০০ টাকা জমা দিতে হয় সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার্থীকে। বৃহস্পতিবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছে, এবার থেকে বিনা পয়সায় খাতা দেখতে পারবে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা। তবে খাতা বাড়িতে নিয়ে যেতে চাইলে পাতা পিছু  ২ টাকা করে দিতে হবে।

মধ্যশিক্ষা পর্ষদ জানিয়েছে, তথ্য জানার অধিকার আইনে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী খাতা দেখতে চেয়ে আবেদন করে। সম্প্রতি তথ্য কমিশন নির্দেশ দিয়েছে যে, খাতার দেখানোর জন্য মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া যাবে না। সেই নির্দেশ মেনেই এই নয়া বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। দিন কয়েক আগে উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদও জানিয়েছে, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীরা চাইলে খাতা দেখতে পারে। চলতি বছর মাধ্যমিকে একের এক প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা বিপাকে পড়েছিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। প্রতিটি পরীক্ষা শুরু আগেই হোয়াটস অ্যাপে ছড়িয়ে পড়েছিল প্রশ্নপত্র। ঘটনায় বেশ কয়েকজন গ্রেপ্তারও করে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: টিএমসিপি-এবিভিপি সংঘর্ষে রণক্ষেত্র ঘাটাল কলেজ, মার বিধায়ক-পুত্রকেও

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং