BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে গিয়ে নিঃস্ব হলেন বৃদ্ধা, উত্তেজনা চুঁচুড়ায়

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: December 31, 2019 7:44 pm|    Updated: December 31, 2019 8:17 pm

Old lady allegedly cheated in Chinsurah Imambara Hospital

কান্নায় ভেঙে পড়েছেন বৃদ্ধা

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: বছরের শেষ দিন হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে এসে প্রতারকের হাতে সোনা-সহ সর্বস্ব খোয়ালেন এক বৃদ্ধা। মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে চুঁচুড়া ইমামবাড়া সদর হাসপাতালে(Chinsurah Imambara Hospital)। পরে স্থানীয় থানায় তিনি অভিযোগ দায়ের করলেও এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কেওটার হেমন্ত বসু কলোনির বাসিন্দা ৭২ বছরের বৃদ্ধা গীতা মণ্ডল মঙ্গলবার হাসপাতালের আউটডোরের টিকিট কাউন্টারে লাইন দিয়েছিলেন। পরিবারের কোনও লোক তাঁর সঙ্গে ছিলেন না। হঠাৎ দু’জন যুবক এসে তাঁকে ডাকেন। তিনি লাইন ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন। এরপর ওই যুবকরা বৃদ্ধাকে পাশে ডেকে নিয়ে বলে তারা রাস্তায় ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা কুড়িয়ে পেয়েছে। কিন্তু, এতটাকা সঙ্গে করে নিয়ে যাওয়া ঠিক নয় বলে তারা বৃদ্ধাকে তার কানের দুল ও হাতের সোনার চুরি খুলে দিতে বলে। তারপর কিছু বলার সুযোগ না দিয়েই বৃ্দ্ধার কান থেকে সোনার দুল ও হাত থেকে সোনার চুরি খুলে নিয়ে তার হাতে একটি প্যাকেট ধরিয়ে কেটে পড়ে। গীতাদেবী প্যাকেট খুলে দেখেন তাতে শুধু খবরের কাগজ আছে। পরে চুঁচুড়া থানায় এই বিষয়ে অভিযোগ জানালেও এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।

[আরও পড়ুন: হাওড়ায় ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে খুন, কারণ নিয়ে বাড়ছে ধোঁয়াশা]

 

অন্যদিকে চুঁচুড়ার এক মহিলার থেকে খুচরো ১০ হাজার টাকা নোট নিয়ে পাঁচটি দুহাজার টাকার জাল নোট দেওয়ার অভিযোগ উঠল। প্রতারিত ওই গৃহবধূর নাম ভারতী ঘোষ। মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে চুঁচুড়ার মোঘলটুলি লেনে। সম্প্রতি ভারতীদেবী গরু কেনার জন্য স্থানীয় এক ব্যক্তির কাছ থেকে ১০০ টাকা ও ২০০ টাকার নোট মিলিয়ে মোট দশ হাজার টাকা ধার নেন। কোনওভাবে স্থানীয় এক যুবক এই কথা জানতে পেরে সোমবার সকালে ভারতীদেবীর বাড়িতে সরাসরি গিয়ে হাজির হয়। তারপর পাঁচটি দু হাজার টাকার নোট দিয়ে খুচরো করে দেওয়ার অনুরোধ করে। ওই যুবককে আগে থেকে চিনতেন ওই গৃহবধূ। তাই সরল বিশ্বাসে ধার করা খুচরো দশ হাজার টাকা দিয়ে দেন।

[আরও পড়ুন: ঘরজামাই থাকতে রাজি না হওয়ায় স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তি, আত্মঘাতী যুবক]

 

কিন্তু, মঙ্গলবার আসল সত্য প্রকাশ্যে আসে। প্রত্যেক মাসের শেষ মঙ্গলবার পোস্ট অফিসের এক মহিলা এজেন্ট প্রিমিয়ামের টাকা নিতে আসেন। আজ তিনি আসার পর ভারতীদেবী একটি ২ হাজার টাকার নোট দেন। কিন্তু, ওই মহিলা এজেন্ট টাকা নিতে অস্বীকার করে জানান, নোটটি জাল। এরপর ভারতীদেবী তাঁকে বাকি নোটগুলি দেখান। সেগুলিও জাল বলে জানান ওই মহিলা। এরপরই প্রতিবেশীদের সঙ্গে নিয়ে ওই যুবকের বাড়িতে হাজির হন ভারতীদেবী। আর সেখানে যাওয়ার পরেই অভিযুক্ত যুবক তাঁর হাত থেকে নোটগুলি ছিনিয়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে দেয়। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ওই যুবকের বিরুদ্ধে চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানিয়েছেন ভারতী ঘোষ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে