১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আক্রান্ত উত্তর বারাকপুরের বৃদ্ধা, কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হল ছেলেকে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 15, 2020 5:19 pm|    Updated: April 15, 2020 5:19 pm

An Images

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য: এবার মারণ ভাইরাসের থাবা উত্তর বারাকপুরে। জানা গিয়েছে, ওই এলাকার বাসিন্দা এক বৃদ্ধার শরীরে বাসা বেঁধেছে করোনা। স্থানীয় কাউন্সিলর সঞ্জীব সিং জানিয়েছেন, বৃদ্ধার রিপোর্ট পজিটিভ আসায় কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে তাঁর ছেলেকে।

সূত্রেব খবর, ওই বৃদ্ধার বয়স ৮০। উচ্চ মাত্রায় শর্করা, রক্তচাপ-সহ বয়সজনিত একাধিক সমস্যা ছিল তাঁর। ২ এপ্রিল আচমকা জ্বর আসে তাঁর। সতর্কতাবশত ওই দিনই তাঁকে ভরতি করা হয় ক্যান্টনমেন্টের একটি হাসপাতালে। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় সেখান থেকে তাঁকে স্থানান্তরিত করা হয় বিএন বোস হাসপাতালে। এরপর চলতি মাসের ৫ তারিখ বৃদ্ধাকে দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি করেন তাঁর ছেলে। চিকিৎসা শুরুর পর উপসর্গে সন্দেহ হওয়ায় নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। প্রথমবার নেগেটিভ আসে রিপোর্ট। স্থানীয় কাউন্সিলর সঞ্জীব সিং বলেন, “প্রথমবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসার কয়েকদিন পর ফের বৃদ্ধার নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। মঙ্গলবার রাতে দ্বিতীয়বারের রিপোর্ট হাতে এলে জানা যায়, করোনা আক্রান্ত ওই বৃদ্ধা। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে তাঁর চিকিৎসা।”

[আরও পড়ুন: লকডাউন উপেক্ষা করে হাওড়ার একাধিক জায়গায় ভিড়, পরিস্থিতি সামলাতে প্রচার পুলিশের]

জানা গিয়েছে, বৃদ্ধা করোনা পজিটিভ হওয়ার পরই কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে তাঁর ছেলেকে। পুত্রবধূ, নাতি-নাতনি ও প্রতিবেশী-সহ মোট দশজনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বৃদ্ধার করোনা সংক্রমণের খবর ছড়িয়ে পড়তেই আতঙ্ক কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে আশেপাশের এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে। বাঁশ দিয়ে অনেকেই গলির প্রবেশস্থল ঘিরে দিয়েছে যাতে, বহিরাগত কেউ প্রবেশ করতে না পারে এলাকায়। এ প্রসঙ্গে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, বৃদ্ধার পরিবারের সদস্যদের উপর নজর রাখা হচ্ছে। কোনও উপসর্গ দেখা দিলেই তাঁদেরও কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হবে। সেই সঙ্গে ইতিমধ্যেই ওই এলাকা স্যানিটাইজ করা হয়েছে বলেও জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে মিলছে না ত্রাণ, খিদের জ্বালায় থালা হাতে রাস্তায় বিক্ষোভে গ্রামবাসীরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement