২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

কল্যাণ চন্দ, মুর্শিদাবাদ: মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর কাটমানি ইস্যুতে জেলায় জেলায় যে বিক্ষোভ মাথাচাড়া দিয়েছে, বুধবার তার রেশ গিয়ে পড়ল মুর্শিদাবাদে৷ কাটমানি ফেরত চেয়ে এদিন সকাল থেকে হাতিনগর গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন বাসিন্দারা৷ অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্যের নাম স্যামুয়েল টুডু৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকার পরিস্থিতি৷

[ আরও পড়ুন: পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ে জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বিরোধিতায় আন্দোলনে আদিবাসীরা ]

জানা গিয়েছে, সরকারি প্রকল্পে বাড়ি তৈরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে মুর্শিদাবাদের ইন্দ্রপ্রস্থ এলাকায় টাকা তুলেছেন অভিযুক্ত এই পঞ্চায়েত সদস্য৷ সময় পেরিয়ে গেলেও সেই বাড়ি এখনও তৈরি না হওয়ায় এদিন ক্ষোভে ফেটে পড়েন গ্রামবাসীরা৷ স্থানীয় সূত্রে খবর, ইন্দ্রপ্রস্থ এলাকায় অভিযুক্ত স্যামুয়েল টুডুর বাড়ির সামনে বুধবার সকাল থেকে বিক্ষোভ দেখান রাঙামাটি চাঁদপাড়া এলাকার সাতটি আদিবাসী পরিবার৷ পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, রাজ্য সরকারের সহায়তায় বাড়ি তৈরির প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁদের প্রত্যেকের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা করে তুলেছে স্যামুয়েল টুডু৷ কিন্তু এখনও বাড়ি তৈরি হয়নি৷ তাই মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পেয়ে অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্যের বাড়ি ঘেরাও করেছেন তাঁরা৷

কেবল মুর্শিদাবাদ নয়, কাটিমানি বিক্ষোভের স্রোত পৌঁছে গিয়েছে মেদিনীপুর শহরেও৷ কাটমানি তোলার অভিযোগ উঠেছে মেদিনীপুর শহরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর মৌ রায় এবং ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নির্মাল্য চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে৷ এলাকারই এক প্রোমোটার মৌ রায়ের বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ তুলে এফআইআর দায়ের করেছেন। প্রমোটর জানিয়েছেন, ফ্ল্যাট তৈরির সময় তাঁর কাছ থেকে দু’দফায় সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা হাতিয়েছিলেন মৌ রায়। সেজন্যই প্রাক্তন কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি।

[ আরও পড়ুন: রবিউল জঙ্গি! মানতে পারছেন না মুরারইয়ের মিত্রপুর গ্রামের প্রতিবেশীরা ]

প্রসঙ্গত, জনরোষের মুখে পড়ে মঙ্গলবার কাটমানি ফেরত দেন সিউড়ি ২ নম্বর ব্লকের কোমা পঞ্চায়েতের খন্যা গ্রামে তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি ত্রিলোচন মুখোপাধ্যায়। স্থানীয়দের অভিযোগ, গ্রামে একটি লম্বা নিকাশি নালা তৈরির করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে সাধারণ মানুষের থেকে দু’লক্ষ টাকা কাটমানি তুলেছিলেন অঞ্চল সভাপতি ত্রিলোচন মুখোপাধ্যায়৷ কিন্তু বহুদিন হয়ে গেলেও সেই নালার কাজ এখনও শুরুই করেননি তিনি৷ যার ফলে গ্রামবাসীদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরেই একটা চাপা ক্ষোভ ছিল৷ মুখ্যমন্ত্রী কাটমানি ফেরতের নির্দেশ দেওয়ায় যাতে ঘৃতাহুতি পড়ে৷ তৃণমূল নেতা ত্রিলোচন মুখোপাধ্যায়ের কাছ থেকে টাকা ফেরতের দাবিতে মঙ্গলবার সকাল থেকে গ্রামে সালিশি সভা বসান স্থানীয়রা। অঞ্চল সভাপতির বাড়ি ঘেরাও করেন গ্রামবাসীরা। সূত্রের খবর, স্থানীয় বিজেপি নেতাদের নেতৃত্বেই এই ঘেরাও অভিযান হয়। এবং সেই জনরোষের মুখে পড়েই অবশেষে বাধ্য হয়ে কাটমানি ফেরত দেন ত্রিলোচন মুখোপাধ্যায়৷ গ্রামের ১৪১ জন মানুষকে ১৬১৭ টাকা করে ফেরত দেন তিনি৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং