৫ আশ্বিন  ১৪২৫  শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৪ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সোমনাথ পাল, বনগাঁ:  তোদের এক একটাকে খুঁজে খুঁজে মারব।’- ভোটের দিন এমনই হুমকি দিয়েছিল হামলাকারীরা। তাই ভোট মিটলেও মিটল না প্রতিশোধ স্পৃহা৷ অসুস্থ ভাইপোকে হাসপাতালে ভরতি করতে এসে ভোট পরবর্তী হিংসার শিকার  হলেন কাকা। ভাইপোকে হাসপাতালে ভরতি করা দূরে থাক, মাথায় আঘাত নিয়ে নিজেই এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আক্রান্ত ব্যক্তির নাম রূপচাঁদ বিশ্বাস।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে আক্রান্ত ব্যক্তি বলেন, এদিন মাঠ থেকে ফিরে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়ে ভাইপো সনাতন দলুই। বুধবার অসুস্থ ভাইপো ও স্ত্রীকে সঙ্গে নিয়ে আসেন বনগাঁ হাসপাতালে। এই পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই চলছিল। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে অসুস্থ ভাইপোকে রেখে রুপচাঁদ গিয়ে ছিলেন ভরতির টিকিট করাতে৷ অভিযোগ, ঠিক সেই সময়ই একদল যুবক অতর্কিতে হামলা চালায় তাঁর ওপর। পাশে থাকা স্ত্রী মহিলা বলে কোনওরকমে পায়ে ধরে ক্ষমা ভিক্ষা চেয়ে রক্ষা পান। হাসপাতাল চত্বরেই রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন রুপচাঁদ। এদিকে  প্রাণভয়ে স্বামীকে ঘটনাস্থল থেকে উধাও স্ত্রী। এলাকা ছাড়ার আগে অসুস্থ ভাইপোকেও জরুরি বিভাগ থেকে সঙ্গে করে নিয়ে গিয়েছেন তিনি।

[মালদহের রতুয়ায় বুথের বাইরে সশস্ত্র দুষ্কৃতীদের দাপাদাপি, দেখুন ভিডিও]

রুপচাঁদের অন্যায় একটাই। ভোটের দিন এলাকায় বহিরাগতদের একজোটে রুখে ছিলেন বাসিন্দারা। সেই দলে ছিলেন রূপচাঁদ। হিংসার খবর পেয়ে ততক্ষণে হাসপাতাল চত্বরে ভিড় করেছে সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধিরা। অভিযোগ, আক্রমণের খবর করতে এসে এদিন লেঠেলবাহিনীর হুমকির পুখে পডেন সাংবাদিকরা। তাঁদের দ্রুত ঘটনাস্থল ছেড়ে যেতে বলা হয়। এদিকে বুধবার বিকেল পর্যন্ত আক্রান্ত রূপচাঁদের স্ত্রী ও ভাইপোর কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি। হাসপাতাল চত্বরে লোকজনের অভাব ছিল না। তবুও রূপচাঁদের উপরে হওয়া হামলার ঘটনা নিয়ে কেউই মুখ খুলতে রাজি নয়। সবারই প্রাণের ভয়। তবে হাসপাতাল চত্বরে থাকা সিসিটিভির ফুটেজ দেখলেই স্পষ্ট হবে হামলাকারীদের পরিচয়। তদন্ত শুরু করেছে বনগাঁ থানার পুলিশ।

[রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসায় বলি আরও ১, মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২৪]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং