BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

৩৬ ঘণ্টার মধ্যে বনগাঁর ঠাকুরবাড়িতে চুরির কিনারা পুলিশের, হাতেনাতে গ্রেপ্তার তিন চোর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 14, 2020 6:04 pm|    Updated: June 14, 2020 6:04 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: মাত্র ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে বনগাঁর ঠাকুরবাড়িতে চুরির কিনারা করল পুলিশ। হাতেনাতে ধরা পড়ল তিন চোর। শনিবার মাঝরাতে গাইঘাটা থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের বনগাঁ মহকুমা আদালতে পেশ করে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চুরির ঘটনা ঘটল গাইঘাটা থানার ঠাকুরনগর ঠাকুর বাড়ির গুরুচাঁদ ঠাকুরের মন্দিরে। শুক্রবার সকালে ঠাকুরবাড়ির কয়েকজন মন্দিরে গিয়ে দেখেন মন্দিরের কাছে দরজা ভাঙা রয়েছে। ঠাকুরের গলার গয়না নেই, প্রণামী বাক্সটি ভাঙা অবস্থায় ঠাকুর বাড়ির সামনের মাঠে পড়ে রয়েছে। গাইঘাটা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ তদন্তে নামে। ঐতিহ্যবাহী এই মন্দিরে কে বা কারা এভাবে চুরি করল, সেই প্রশ্নের পাশাপাশি মন্দিরের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন উঠে যায়।

[আরও পড়ুন: বিরামহীন বৃষ্টিতে দার্জিলিংয়ে ধস, অল্পের জন্য বড়সড় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা একই পরিবারের ৪ জনের]

এরপর শনিবার মধ্যরাতে উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটা থানার ঠাকুরনগর এলাকা থেকে তিন জনকে আটক করে পুলিশ। ধৃতদের নাম অনুপম রায়, শান্তনু মণ্ডল ও শুভ সমদ্দার। ধৃতরা সকলেই গাইঘাটা থানার ঠাকুরনগর বণিকপাড়া ও আনন্দপাড়ার বাসিন্দা। বয়স ১৮ থেকে ২৪এর মধ্যে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, জেরায় তিনজনই স্বীকার করে, তারা চুরি করেছে।  নিতান্ত অভাবের তাড়নায় এই কাজ বলে দাবি ধৃতদের। তাদের কাছ থেকে গুরুচাঁদ মন্দির থেকে চুরি যাওয়া প্রণামী বাক্সের বেশ কিছু টাকাও উদ্ধার হয়েছে। এরপরই তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। রবিবার সাত দিনের পুলিশি হেফাজত চেয়ে ধৃতদের বনগাঁ মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছিল। পুলিশের তৎপরতার প্রশংসা করে ঠাকুরবাড়ির এক সদস্য জানিয়েছেন, পুলিশ অত্যন্ত দ্রুত চুরির কিনারা করেছে। এরপর থেকে এই মন্দিরের নিরাপত্তা বাড়ানো হবে।

[আরও পড়ুন: গাছ পড়ে ভেঙেছে পাঁচিল, ঝুলছে তার, জলে মশার উপদ্রবে আতঙ্কে লিলুয়ার রেল আবাসিকরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement