১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শান্তিপুর কলেজের লাইব্রেরিতে মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে দুই অধ্যাপককে মারধর

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: January 25, 2019 8:45 pm|    Updated: January 25, 2019 9:12 pm

Professor beaten in College Library

বিপ্লবচন্দ্র দত্ত, কৃষ্ণনগর: কলেজের আর্থিক দুর্নীতির প্রতিবাদ করেছিলেন। শাস্তি – লাইব্রেরিতেই আক্রান্ত হলেন আংশিক সময়ের দুই অধ্যাপক। মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে তাঁদের মারধর ও নিগ্রহ করা হয়েছে বলে অভিযোগ। কলেজের ছাত্র সংসদের প্রাক্তন সহ-সভাপতি ও শাসকদলের এক ছাত্রনেতা-সহ সাতজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্ত অধ্যাপকরা। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার শান্তিপুর কলেজে।

শান্তিপুর কলেজে ইতিহাস ও বাণিজ্য বিভাগের আংশিক সময়ের অধ্যাপক রামকৃষ্ণ মণ্ডল ও যাদবকুমার ঘোষ। তাঁদের অভিযোগ, আর্থিক দুর্নীতিতে অভিযুক্ত শান্তিপুর কলেজের প্রাক্তন এক অধ্যক্ষ। এখনকার অধ্যক্ষ চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য তাঁকে আড়াল করার চেষ্টা করছেন। এমনকি, তিনি নিজেই আর্থিক দুর্নীতি ও বেনিয়মের সঙ্গে জড়িত। শান্তিপুর কলেজের আংশিক সময়ের অধ্যাপক রামকৃষ্ণ মণ্ডলের অভিযোগ, এসবের প্রতিবাদ করায় তাঁকে ও অধ্যাপক যাদবকুমার মণ্ডলকে নিয়মিত ফোন হুমকি দিচ্ছিলেন মনোজ সরকার নামে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের এক নেতা।

                                   [ বাড়ি থেকে উদ্ধার শিক্ষকের ঝুলন্ত দেহ, স্ত্রীর চাপে আত্মহত্যা দাবি পরিবারের]

বুধবার দুপুরে যখন শান্তিপুর কলেজের লাইব্রেরিতে বসেছিলেন অধ্যাপক রামকৃষ্ণ মণ্ডল ও যাদব কুমার ঘোষ, তখন তাঁদের উপর হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। আক্রান্ত দুই অধ্যাপকের দাবি, লাইব্রেরিতে ঢুকে রীতিমতো মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে তাঁদের মারধর ও নিগ্রহ করেন ছাত্র পরিষদের প্রাক্তন সহ-সভাপতি ও টিএমসিপি নেতা সৌমিত্র প্রামাণিক ও তাঁর অনুগামীরা। হামলাকারীদের দলে বহিরাগতরাও ছিল বলে অভিযোগ। শেষপর্যন্ত পুলিশ গিয়ে আক্রান্ত দুই অধ্যাপককে উদ্ধার করে। শান্তিপুর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এদিকে শান্তিপুর কলেজের লাইব্রেরিতে ঢুকে দুই অধ্যাপককে মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত টিএমসিপি নেতা সৌমিত্র প্রামাণিক।

ছবি: সুজিত মণ্ডল

[ফের কিশোরের উপর চিতাবাঘের হানা, আতঙ্ক উত্তরবঙ্গের চা বাগানে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে