BREAKING NEWS

২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৯ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চাকরি দেওয়ার নামে লক্ষ লক্ষ টাকা আদায়, তৃণমূল নেতার বাড়িতে চড়াও হয়ে বিক্ষোভ জনতার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 6, 2022 2:30 pm|    Updated: August 6, 2022 4:24 pm

Purba Medinipur TMC leader faces public wrath for taking money promising job of Gr D in SSC | Sangbad Pratidin

রঞ্জন মহাপাত্র, কাঁথি: সদ্যই সামনে এসেছে রাজ্যের স্কুলগুলিতে শিক্ষক নিয়োগ অর্থাৎ এসএসসি-তে (SSC) বড়সড় কেলেঙ্কারির ঘটনা। এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ED)হাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও তাঁর ঘনিষ্ঠ মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। আপাতত তাঁরা রয়েছেন জেল হেফাজতে। এই পরিস্থিতিতে এসএসসি গ্রুপ ডি-তে নিয়োগের নামে চাকরিপ্রার্থীদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা আদায়ের অভিযোগ জনতার বিক্ষোভের মুখে পড়লেন পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল (TMC) নেতা। শনিবার তাঁর বাড়িতে চড়াও হয়ে দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখালেন চাকরিপ্রার্থীদের পরিবারের সদস্যরা। তাঁকে বাড়িতে না পেয়ে স্ত্রী, ছেলের উপরই আছড়ে পড়ল রোষ। তাঁদের গাছে বেঁধে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। 

পূর্ব মেদিনীপুরের (East Midnapore) ভগবানপুর বিধানসভা এলাকার ভগবানপুর ১ নম্বর ব্লকের কোটবার গ্রাম পঞ্চায়েত। এই এলাকাতেই থাকেন পঞ্চায়েতের প্রাক্তন বিদ্যুৎ কর্মাধ্যক্ষ শিবশংকর নায়েক। অভিযোগ, চাকরি দেওয়ার নাম করে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে কয়েক লক্ষ টাকা তিনি আদায় করেছেন। সূত্রের খবর, রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) ঘনিষ্ঠ নান্টু প্রধানের মূল এজেন্ট ছিলেন শিবশংকর। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তারি এবং জেল হেফাজতের খবর পেয়ে শনিবার সকালে চাকরিপ্রার্থীদের সমস্ত রাগ গিয়ে পড়ল শিবশংকরের উপর। তাঁর বাড়িতে চড়াও হলেন জনগণ। শিবশংকরের স্ত্রী মলিনা নায়েক বর্তমান পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য। রোষ আছড়ে পড়ে তাঁর উপরও।

[আরও পড়ুন: বাজিমাত তেজসের, ভারতের থেকে যুদ্ধবিমান কিনতে আগ্রহী খোদ আমেরিকা]

শনিবার সকাল থেকে প্রতারিত চাকরিপ্রার্থীরা দফায় দফায় শিবশংকর নায়কের বাড়িতে বিক্ষোভ দেখায়। বাড়ির দরজায় ধাক্কা দিয়ে পরিবারের সদস্যদের উপর ক্ষোভ উগড়ে দেন তাঁরা। সেসময় বাড়িতে ছিলেন না শিবশংকর। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে একেকজনের কাছ থেকে লক্ষাধিক টাকা আদায় করেন তিনি। তার জন্য পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মূল এজেন্ট নান্টু প্রধানের নাম উল্লেখ করতেন। বোঝাতে চাইতেন, তিনি চাকরি দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন। কিন্তু যাঁরা টাকা দিতেন, তাঁরা পরে চাকরির কথা বললেই এড়িয়ে যেতেন শিবশংকর। কেউ আবার জানালেন, দফায় দফায় মোট ৮ লক্ষ টাকা নিয়েছিলেন।

এদিন ব্যাপক বিক্ষোভ দেখানো হয়। অভিযোগ, পরিবারের সদস্যদের গাছে বেঁধে চলে মারধর। প্রতারিতদের দাবি, অবিলম্বে শিবশংকরকে গ্রেপ্তার করে সমস্ত টাকা ফেরানো হোক।

[আরও পড়ুন: ঘরোয়া ভিতু মেয়ে থেকে মারকুটে অবতার, আসছে নতুন ধারাবাহিক ‘জগদ্ধাত্রী’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে