BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

৮ হাজার পরিযায়ীর কর্মসংস্থান করছে জেলা পরিষদ, পুরুলিয়ায় মানবিক উদ্যোগ

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 8, 2021 8:13 pm|    Updated: June 9, 2021 4:20 pm

Purulia administration provides job to 8 thousand migrant workers । Sangbad Pratidin

জেলা পরিষদে নাম নথিভুক্তিকরনের কাজ চলছে। ছবি: সুনীতা সিং।

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: অতিমারীর কঠিন সময়ে মানবিক উদ্যোগ পুরুলিয়া (Purulia) জেলা পরিষদের। একটি সর্বভারতীয় নির্মাণ সংস্থায় পুরুলিয়ার আট হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে কাজের ব্যবস্থা করে দিচ্ছে পুরুলিয়া জেলা পরিষদ। পরিযায়ীদের কাজ দেওয়ার জন্য পুরুলিয়া জেলা প্রশাসনের ‘বিশ্বকর্মা’ পোর্টালে যাদের নাম নথিভুক্ত রয়েছে তাঁরাই আবেদনের ভিত্তিতে দক্ষতা অনুযায়ী এই কাজের সুযোগ পাবেন।

আপাতত তিনটি বিভাগ কারপেন্টার, ফিটার ও সাধারণ শ্রমিক হিসাবে কাজে নেওয়া হবে। প্রয়োজনে রাজমিস্ত্রীদেরও কাজে নেবে বলে ওই সর্বভারতীয় নির্মাণ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি জানিয়েছে। খুব শীঘ্রই এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি জারি করতে চলেছে পুরুলিয়া জেলা পরিষদ। এ প্রসঙ্গে সভাধিপতি সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “কোভিডের প্রথম পর্ব থেকেই এই জেলার পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে আমরা রয়েছি। তাদের মাটির সৃষ্টি প্রকল্পে কাজ দেওয়া হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের বিশ্বকর্মা পোর্টালে যে সকল পরিযায়ীর নাম রয়েছে তারা যাতে কাজ পান তাই বিভিন্ন কোম্পানির কাছে তাঁদের নাম পাঠানো হয়েছে। তাদের একটা বড় অংশ কাজ পেয়ে গিয়েছেন। এবার জেলা পরিষদও ওই পোর্টালে নাম নথিভুক্ত থাকা আট হাজার শ্রমিককে কাজ দেবে।”

[আরও পড়ুন: ‘ভালবাসার মানুষকেই বিয়ে করব’, প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধরনায় মালদহের তরুণী]

গত বছর কোভিডের প্রথম পর্বে জেলায় কত পরিযায়ী শ্রমিক রয়েছে তার তালিকা তৈরি করে রাজ্য সরকারের সঙ্গে সমন্বয়ের মাধ্যমে তাদের ঘরে ফিরিয়ে আনে পুরুলিয়া জেলা পরিষদ। এবার একধাপ এগিয়ে তাদের কাজের ব্যবস্থা করে দিচ্ছে। পুরুলিয়া জেলা পরিষদ সূত্রে জানা গিয়েছে, ১৫টি এজেন্সির মাধ্যমে ওই সর্বভারতীয় নির্মান ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানিতে কাজ দেওয়া হবে। তবে কাজ পাওয়া পরিযায়ীদের অর্থ দেবে ওই এজেন্সিগুলি। ওই কোম্পানির সঙ্গে সংস্থার চুক্তি থাকবে। পরিযায়ীদের কাজ দিতে এই যোগসূত্রটা করে দিচ্ছে পুরুলিয়া জেলা পরিষদ।

 

জানা গিয়েছে, কারপেন্টার ও ফিটার পদে দু’হাজার করে চার হাজার। সেই সঙ্গে সাধারন শ্রমিক হিসাবে আরও চার হাজার পরিযায়ীকে কাজ দেওয়া হবে। করোনাকালে সংক্রমন এড়াতে অনলাইনে আবেদন করতে হবে। [email protected] এই ইমেল অ্যাড্রেসে আবেদন করলে নির্ভুল জীবন পঞ্জীগুলিকে জেলা পরিষদ ওই নির্মাণ সংস্থার কাছে পাঠিয়ে দেবে। সেখানেই দক্ষতার বিচার করে কাজ দেওয়া হবে। দক্ষ শ্রমিক অর্থাৎ কারপেন্টার, ফিটারের ক্ষেত্রে প্রায় সর্বোচ্চ ১২ হাজার টাকা ও সাধারন শ্রমিক অর্থাৎ অদক্ষ শ্রমিকদের জন্য সর্বোচ্চ ন’হাজার টাকা বেতন মিলবে। সেই সঙ্গে থাকারও ব্যবস্থা করে দেবে। তারা যাতে রান্না করে খেতে পারেন তার পরিকাঠামো গড়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করতে ওই সংস্হাকে বলেছে জেলা পরিষদ। ওই নির্মাণ সংস্থা দেশের যে কোনও প্রান্তে দক্ষতার বিচারে পরিযায়ীদের কাজের ব্যবস্থা করবে। পুরুলিয়া জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বিশ্বকর্মা পোর্টালে ১৫,২৯৭ জন পরিযায়ী শ্রমিকের নাম নথিভুক্ত রয়েছে। তার মধ্যে ৯,০১৯ জনের নাম বিভিন্ন কোম্পানীতে কাজের জন্য সুপারিশ করা হয়।

[আরও পড়ুন: ফিরতে চান তৃণমূলে, বীরভূমে মাইকিং করে আবেদন বিজেপি কর্মীদের!]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement