২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুর্গাপুজোয় রাজ্যজুড়ে বিক্ষিপ্তভাবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। সেই বৃষ্টির মধ্যেও যদিও মহোৎসবে ভাটা পড়েনি কোথাও। বৃষ্টি পিছু ছাড়েনি মঙ্গলবার দশমীতেও। দশমীর দিন সন্ধ্যায় কলকাতা-সহ শহরতলির বিভিন্ন এলাকায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হয়। বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষিপ্তভাবে চলে বর্ষণ। বৃষ্টির আশঙ্কার মেঘ আগামী দিনেও কাটবে না বলে জানাচ্ছে আবহাওয়া দপ্তর। মেঘলা আকাশ মাথায় নিয়েই ধনদেবীর আরাধনায় মাততে হবে বঙ্গবাসীকে। হতে পারে বৃষ্টিও। এমনই আশঙ্কার কথা শুনিয়ে রাখল হাওয়া অফিস।

[আরও পড়ুন: মনখারাপের মাঝেই দুই বাংলার প্রতিমা বিসর্জনে মানুষের ঢল ইছামতী নদীতে]

মায়ের বিসর্জনের পরের দিনও থামেনি বৃষ্টি। বুধবার অর্থাৎ একাদশীর সকাল থেকে কলকাতা ও তার সংলগ্ন জেলাগুলি বৃষ্টিতে ভিজেছে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, দিনভর বিভিন্ন জেলায় এভাবেই বর্ষণ চলবে। তবে বৃহস্পতিবার থেকে আবহাওয়া খানিকটা বদলাতে পারে। আগামী দু’দিন হয়তো বরুণ দেবের দৃষ্টি এড়ানো সম্ভব হবে। যদিও তা অত্যন্ত ক্ষণস্থায়ী। কারণ লক্ষ্মীপুজোর সময়ও বৃষ্টির সম্ভাবনা উড়িয়ে দিচ্ছে না আবহাওয়া দপ্তর। আলিপুর হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, লক্ষ্মী পুজোর সময়ও দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। আবহাওয়া দপ্তরের তরফে এও জানানো হয়েছে আগামী কয়েকদিন কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় আকাশ মেঘলা থাকবে। কোথাও কোথাও হালকা এবং বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, দুর্গাপুজো শুরু হওয়ার আগেই আবহাওয়া দপ্তরের তরফে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা বলা হয়েছিল। শরতের আকাশে বারবার বজ্রগর্ভ মেঘের ঘনঘটা দেখেছেন বঙ্গবাসী। জানানো হয়েছিল, নবমী ও দশমীতে দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় ভারী বৃষ্টিপাত হবে। সেই আশঙ্কা সত্যি করেই দশমীতে ভারী ও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়। যদিও সেই বৃষ্টি উপেক্ষা করেই উৎসবে মেতেছিলেন বাঙালিরা। এবার দুর্যোগ মাথায় নিয়ে লক্ষ্মী পুজোতেও শামিল হওয়ার পালা। 

[আরও পড়ুন: ঘর থেকে সন্তান-সহ দম্পতির ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার, খুনের কারণ নিয়ে ধন্দে পুলিশ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং