২২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ৫ জুন ২০২০ 

Advertisement

আরও বিপাকে রাজীব কুমার, আগাম জামিনের আরজি ফেরাল বারাসত আদালত

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 17, 2019 6:29 pm|    Updated: September 17, 2019 6:29 pm

An Images

ফাইল চিত্র

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাসত: সারদা মামলায় ফের ধাক্কা খেলেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার। বারাসত আদালতে তাঁর করা আগাম জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে গেল। বিচারক জানিয়ে দিলেন, এই মামলায় রায়দান করার কোনও এক্তিয়ার বারাসত আদালতের নেই। উত্তর ২৪ পরগনার জেলা আদালতে এই মামলার শুনানি হওয়ার কথা নয়। মামলাটি আলিপুর জেলা আদালতে ওঠার কথা। ফলে আইনি গ্যাঁড়াকলে পড়ে সিবিআইয়ের গ্রেপ্তারি থেকে রক্ষাকবচ পেলেন না কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার। রাজীব কুমারের পরবর্তী পদক্ষেপ কী হবে তা এখনও জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: বিমানবন্দরে হঠাৎ দেখা, মোদির স্ত্রীকে শাড়ি উপহার দিলেন মমতা]

হাই কোর্ট রাজীব কুমারের গ্রেপ্তারিতে নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়ার পর থেকেই তাঁকে হেফাজতে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে সিবিআই। কিন্তু, কলকাতার দুঁদে পুলিশকর্তা হাই কোর্টের রায়ের পর থেকেই কার্যত উধাও। তাঁর কোনও খবরই পাওয়া যাচ্ছে না। সিবিআই তো বটেই, রাজ্য প্রশাসনের কাছেও রাজীবের কোনও হদিশ নেই। সিবিআই কর্তারা তাঁকে হেফাজতে পেতে নবান্ন পর্যন্ত গিয়েছিল। কিন্তু, তাতে কোনও লাভ হয়নি। রাজ্য পুলিশের ডিজি সিবিআইকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন, রাজীব কোথায় আছেন তা তাঁরাও জানেন না। এরপরই সিবিআইকে সহযোগিতা করার লক্ষ্যে তাঁকে আলাদা করে নোটিস পাঠান রাজ্য প্রশাসনের তিন কর্তা। সেই নোটিসেরও কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

মঙ্গলবার বারাসত জেলা দায়রা আদালতে রাজীব কুমারের আইনজীবীরা তাঁর আগাম জামিনের আবেদন জানান। পালটা রাজীবের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করার আবেদন জানায় সিবিআই। সেই মামলার শুনানিতে সিবিআই জানায়, রাজীব কুমারকে হেফাজতে নেওয়া প্রয়োজন। উনি আর সারদা মামলায় সাক্ষী নন, অভিযুক্ত। সারদার মূল অফিস বিধাননগর এলাকাতেই ছিল। সেসময় রাজীব কুমার বিধাননগরের পুলিশ কমিশনার ছিলেন। তিনি সব জানতেন। তাঁর নির্দেশেই তদন্ত শুরু হয়েছিল।” রাজীব কুমার বাইরে থাকলে তিনি তদন্তকে প্রভাবিত করতে পারেন বলেও মনে করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা।

[আরও পড়ুন: ‘পাওনা আদায়ে দিল্লি যাচ্ছি’, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী]

কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারকে এতদিন সারদা মামলায় সাক্ষী হিসেবে দেখা হচ্ছিল। এবার সিবিআই জানিয়ে দিল রাজ্যের পদস্থ সিবিআই কর্তা আর সাক্ষী নন, তিনি এখন অভিযুক্ত। তাঁর বিরুদ্ধে সারদা মামলার তদন্তে অসহযোগিতা করার অভিযোগ রয়েছে। অন্যদিকে রাজীবের আইনজীবীরা যে কোনও মূল্যে তাঁর জামিন চাইছিলেন। দু’পক্ষের যুক্তি শোনার পর বিচারক জানিয়ে দেন, এই মামলায় রায়দান করার এক্তিয়ার বারাসত আদালতের নেই। ফলে, এই মামলা সরে গেল আলিপুর আদালতে। এবং আপাতত রাজীব গ্রেপ্তারি থেকে কোনও রক্ষাকবচ পেলেন না রাজীব কুমার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement