BREAKING NEWS

০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ১৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রানিগঞ্জের ঘটনায় রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব কেন্দ্রের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 28, 2018 11:22 am|    Updated: July 17, 2019 4:08 pm

Ranigunj Clash: Centre seeks report from WB Govt.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাম নবমীর ঘটনাকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে রানিগঞ্জ। জখম হন ডিসি সদর। বাড়িঘর, দোকানপাটে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়। এখনও এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি। পুরো ঘটনায় এবার রাজ্যের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠাল কেন্দ্র। আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় উদ্যোগী হওয়ার পরই কেন্দ্রের এই পদক্ষেপ।

 যোগীর নির্দেশ শিরোধার্য, খাকি উর্দি ছেড়ে ধুতি-পাঞ্জাবিতে পুলিশ ]

রাম নবমীর মিছিলে দুষ্কৃতী হামলাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রানিগঞ্জ। বিশেষ একটি এলাকায় রাম নবমীর মিছিল চলে এলেই ঝামেলা বাধে। চলে ব্যাপক বোমাবাজি। পরিস্থিতি সামাল দিতে পুলিশ এলে আক্রমণের মুখে পড়েন পুলিশ কর্মীরাও। বোমার আঘাতে মারাত্মক জখম হন ডিসি সদর অরিন্দম দত্তচৌধুরী। এদিকে পুরো ঘটনায় পুলিশকেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন আসানসোলের সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। তাঁর দাবি, পুলিশি নিষ্ক্রিয়তাতেই এতবড় ঘটনা ঘটেছে রানিগঞ্জে। মঙ্গলবার বিজেপির রাজ্য দপ্তরে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করে জানান, “পুলিশ দেরিতে সক্রিয় হয়েছে। ঘটনা প্রথমে ঘটতে দেওয়া হয়েছে। দু-ঘণ্টা ঝামেলা হতে দিয়েছে পুলিশ। পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যাওয়ার পর পুলিশ সক্রিয় হয়।” তাঁর দাবি ঘটনার গতিপ্রকৃতি দেখে পুরোটাই পূর্ব পরিকল্পিত বলে মনে হয়েছে তাঁর। পুরো ঘটনার কথা রাজ্যপাল ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককেও জানান তিনি।

[  অসুস্থ সদ্যোজাতকে পাশে নিয়েই রাত জেগে পরীক্ষার প্রস্তুতি গৃহবধূর ]

বাবুলের কাছে ঘটনা শুনেই এ ব্যাপারে খোঁজ নেন প্রধানমন্ত্রী। রানিগঞ্জের পরিস্থিতি এখন কেমন, তা জানতে চান। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহও আলাদা করে কথা বলেন সাংসদের সঙ্গে। এরপরই রাজ্যের কাছে রিপোর্ট চেয়ে পাঠায় কেন্দ্র। নিরাপত্তার খাতিরে প্রয়োজনে আধাসেনা মজুত করা হতে পারে বলেও ইঙ্গিত কেন্দ্রের। রাজ্য চাইলে তবেই তা দেওয়া হবে। নিরাপত্তা রক্ষার্থে সবরকম সাহায্য করতে কেন্দ্র প্রস্তুত বলেও জানানো হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে