BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

জীবিতদের ‘মৃত’ দেখিয়ে বাতিল রেশন কার্ড! প্রতিবাদে বিডিও অফিসের সামনে ধরনায় বঞ্চিত পরিবার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 14, 2020 3:39 pm|    Updated: October 14, 2020 3:39 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: পরিবারের তিন সদস্যই রয়েছেন বহাল তবিয়তে। অথচ তাঁদেরই ‘মৃত’ দেখিয়ে রেশন কার্ড (Ration Card) বাতিল করার মতো চাঞ্চল্যকর অভিযোগ পশ্চিম বর্ধমানের অন্ডাল (Andal) ব্লক খাদ্য দপ্তরের বিরুদ্ধে। বুধবার রেশন কার্ডের দাবিতে বিডিও অফিসের সামনে ধরনায় বসলেন ওই পরিবারের সদস্যরা। ঘটনায় রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলল স্থানীয় সিপিএম নেতৃত্ব।

অন্ডাল ব্লকের মদনপুরের বাস্কার বাসিন্দা অতীত ঘোষ, তাঁর স্ত্রী সঙ্গীতা ও আট বছরের পুত্র আভাসের নামে তিনটি রেশন কার্ড ছিল। বিপিএল
তালিকাভুক্ত এই পরিবার ওই কার্ড দেখিয়ে প্রায় বছর কুড়ি ধরে রেশন সামগ্রীও পাচ্ছিলেন। গত সপ্তাহে রেশন তুলতে গেলে ডিলার জানান যে এই
কার্ডগুলিতে আর রেশন পাওয়া যাবেনা। কার্ডগুলি বাতিল হয়ে গিয়েছে। কিন্তু কেন হঠাৎ রেশন কার্ড বাতিল? এই প্রশ্নের কোনও সদুত্তর দিতে পারেননি ওই ডিলার। এরপর অতীতবাবু কার্ড নিয়ে ব্লক খাদ্য দপ্তরে যান। সংশ্লিষ্ট আধিকারিক কম্পিউটারের তথ্য দেখে জানান, যাঁদের নামে এই কার্ডগুলি রয়েছে, তাঁরা মারা যাওয়ায় কার্ড বাতিল করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ফাঁকা রাস্তায় একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা! যুবককে উচিত শিক্ষা দিল স্কুলছাত্রী]

উত্তর শুনে রীতিমত আকাশ থেকে পড়েন অতীতবাবু। তিনি জানান, “আমরা তিনজনই সুস্থ সবল রয়েছি। আমাদের মৃত ঘোষণা করে কারা কার্ডগুলি বাতিল করল, তদন্ত করে দেখুক প্রশাসন। আর ততদিন রেশন সামগ্রীর ব্যাবস্থা করুক প্রশাসন।” এরপর তিনি ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা ব্লক খাদ্য দপ্তরের সামনে প্ল্যাকার্ড নিয়ে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন। তাঁদের সঙ্গে যোগ দেয় সিপিএমও।

ঘটনায় যথারীতি রাজনৈতিক রং লেগেছে। সিপিএম জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য তুফান মণ্ডলের বক্তব্য, “এটা রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র। বহু বিরোধী
সমর্থকেরই রেশন কার্ড বাতিল হয়েছে। গোটা ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করে দোষীদের শাস্তি দিতে হবে।” অণ্ডালের ব্লক তৃণমূল সভাপতি কালুবরণ
মণ্ডল এই রেশন কার্ড বাতিলের অভিযোগ নিয়ে বলেন, “তাহলে তিনজনের কার্ড কেন বাতিল হবে? বহু বিরোধী সমর্থক রয়েছেন, তাঁদেরটা কেন বাতিল হল না? কোনও ভুল হয়ে থাকতে পারে। তা সংশোধনও করা হবে। ঘোলা জলে মাছ ধরতে নেমেছে সিপিএম।”

[আরও পড়ুন: বয়সজনিত কারণ নাকি অন্য কিছু? গরুমারা দাপিয়ে বেড়ানো গন্ডার ডনের মৃত্যুতে প্রশ্ন]

বুধবার বিডিও অফিসের সামনে এর প্রতিবাদে সিপিএমের নেতৃত্বে ধরনায় বসা অতীতবাবু ও তার পরিবার প্রায় তিন ঘন্টা ধরে অবস্থান বিক্ষোভ করেন। পরে অন্ডালের বিডিও ঋত্বিক হাজরার আশ্বাসে বিক্ষোভ ওঠে। বিডিও জানান, “গোটা ঘটনার তদন্ত হচ্ছে। রেশন কার্ড কেন বাতিল হল, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গাফিলতি প্রমাণ হলে বিভাগীয় শাস্তি পাবেন অভিযুক্ত।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement