BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

ফাঁকা রাস্তায় একা পেয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা! যুবককে উচিত শিক্ষা দিল স্কুলছাত্রী

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 14, 2020 12:51 pm|    Updated: October 14, 2020 1:32 pm

An Images

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: নারীরাও যে রুখে দাঁড়াতে পারে, নিজেকে রক্ষা করার ক্ষমতা রাখে, এবার তা প্রমাণ করে দিল এক স্কুলছাত্রী। ভয় না পেয়ে সে নিজেই উচিত শিক্ষা দিল তার শ্লীলতাহানির চেষ্টায় উদ্যত হওয়া এক যুবককে। রাস্তায় ফেলে মারধরের পর অভিযুক্তকে পুলিশের হাতে তুলে দিল ‘সাহসিনী’। ঘটনাটি সুন্দরবন (Sundarban) পুলিশ জেলার ঢোলাহাট থানার দিগম্বরপুরের।

জানা গিয়েছে, টিউশন পড়ে একাই বাড়ি ফিরছিল ওই কিশোরী। দিগম্বরপুর এলাকায় সাইকেল আরোহী এক যুবক তার রাস্তা আটকায়। আচমকা এই ঘটনায় হতচকিত হলেও মুহূর্তে নিজেকে সামলে নেয় ওই কিশোরী। ওই যুবক তার গায়ে হাত দিয়ে শ্লীলতাহানির চেষ্টা করতেই  পালটা দেয় ওই ছাত্রী। চুল ধরে টেনে হিঁচড়ে যুবককে সাইকেল থেকে রাস্তায় ফেলে দেয় সে। অভিযুক্তকে নাগাড়ে কিল, চড় মারতে থাকে। সেই সঙ্গে লোক জড়ো করতে আর্তনাদও করে। কিছুক্ষণের মধ্যেই শব্দ শুনে স্থানীয়রা জড়ো হয়ে যায়। তাঁরাই অভিযুক্তকে কিশোরীর হাত থেকে উদ্ধার করে একটি ঘরে আটকে রাখে।

[আরও পড়ুন: অনলাইনে কেনা জামা নাপসন্দ, ফেরত দিতে গিয়ে প্রায় লাখ টাকা খোয়ালেন খড়গপুরের বাসিন্দা!]

স্থানীয়দের অনেকেই কিশোরীকে পরামর্শ দেয় অভিযু্ক্তকে পুলিশের হাতে না দিয়ে তার অভিভাবকদের ডেকে বিষয়টি জানানোর। কিন্তু নাছোড়বান্দা সে। অভিযুক্তকে যথোপযুক্ত শাস্তি দিতে বদ্ধপরিকর কিশোরী শেষে ঢোলাহাট থানার পুলিশের হাতেই তুলে দেয় অভিযুক্ত যুবককে। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম চয়ন দাস। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। আগে থেকেই কী ওই কিশোরীকে অনুসরণ করত অভিযুক্ত যুবক? তা এখনও জানা যায়নি।

[আরও পড়ুন: দিঘা মোহনার কাছে মাছবোঝাই ট্রলার উলটে বিপত্তি, দীর্ঘক্ষণ পর উদ্ধার মাঝির দেহ

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement