১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

নন্দন দত্ত, রামপুরহাট: নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ধারে বাড়িতে ঢুকে গেল ইট বোঝাই লরি৷ ঘুমন্ত অবস্থায় চাকার পিষে মৃত্যু হল দীপ দাস নামে একটি চার মাসের শিশুর৷ আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার সকাল থেকেই উত্তপ্ত বীরভূমের রামপুরহাট৷ লরির চালক ও খালাসি-সহ মোট তিনজনকে পাকড়াও করেন গ্রামবাসীরা৷ তাদের বেঁধে রেখে প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা৷ ঘটনাস্থলে আসে রামপুরহাট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী৷ তাঁরাই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে৷

[ আরও পড়ুন: তৃণমূল-বিজেপি দ্বন্দ্বে হাতছাড়া আর্থিক বরাদ্দ, থমকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা পরিষদের কাজকর্ম ]

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ভোর সাড়ে ছটা নাগাদ মুর্শিদাবাদের দিক থেকে আসছিল ঘাতক ইট বোঝাই লরিটি৷ রামপুরহাটের চামড়াগুদাম মোড়ের কাছে হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে সেটি৷ এবং রাস্তার ধারের চারটি মাটির বাড়িতে গিয়ে ধাক্কা মারে৷ ওই সময় একটি বাড়িতে ঘুমন্ত অবস্থার ছিল চার মাসের দীপ দাস ও আরও তিনজন৷ লরিটি বাড়িতে ধাক্কা মারলে, ঘুমন্ত অবস্থাতেই সেটার চাকায় পিষ্ট হয় চার মাসের শিশুটি৷ বাকিরা গুরুতর জখম হয়৷ সঙ্গে সঙ্গে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় রামপুরহাট হাসপাতালে৷ এখনও সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছে তারা৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর, প্রত্যেকের অবস্থা বেশ গুরুতর৷

[ আরও পড়ুন: বিদ্যুৎ বিল নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক প্রচার করা হচ্ছে, দাবি শোভনদেবের ]

এই ঘটনার পরেই টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ করেন স্থানীয় গ্রামবাসীরা৷ রামপুরহাট-পারুলিয়া মোড় অবরোধ করে উত্তেজিত জনতা৷ চালক-সহ মোট তিনজনকে পাকড়াও করেন গ্রামবাসীরা৷ লাইট পোস্টের সঙ্গে বেঁধে প্রথমে পেটান হয় তাদের৷ এরপর রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন ক্ষুব্ধ জনতা৷ ঘটনার খবর পেয়েই সেখানে আসে রামপুরহাট থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী৷ তারা পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন৷ কিন্তু পুলিশকে দেখে বিক্ষোভের তেজ আরও বাড়িয়ে দেন গ্রামবাসীরা৷ এরপর রামপুরহাট থানার আইসি সন্দীপন চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে আসে আরও পুলিশ বাহিনী৷ প্রশাসনের তরফে সাহায্য বা ক্ষতিপূরণের আশ্বাস দিলে অবরোধ তোলেন গ্রামবাসীরা৷ যদিও এলাকার পরিস্থিতি আরও এখনও থমথমে রয়েছে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং