Advertisement
Advertisement
Shibu Hazra

সন্দেশখালিতে অশান্তির নেপথ্যে কারা? গোপন ডেরা থেকে কী দাবি অভিযুক্ত শিবুর?

সন্দেশখালি কাণ্ডের পর থেকেই 'ফেরার' শাহজাহান ঘনিষ্ঠ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা শিবু ওরফে শিবপ্রসাদ হাজরা। পুলিশের দাবি তাঁকে নাকি খুঁজেই পাওয়া যাচ্ছে না। অথচ প্রায় ১০ দিন পর গোপন ডেরা থেকে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি তৃণমূল নেতা। সন্দেশখালির অশান্তি নেপথ্যে RSS, সিপিএম রয়েছে বলেই দাবি তাঁর। 

Sandeshkhali violence: Here is what accused Shibu Hazra said । Sangbad Pratidin
Published by: Sayani Sen
  • Posted:February 14, 2024 5:23 pm
  • Updated:February 14, 2024 7:02 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্দেশখালি কাণ্ডে অভিযুক্ত হিসাবে বার বার উঠে এসেছে তাঁর নাম। শ্লীলতাহানি থেকে লুটপাট, ভেড়ি দখল একাধিক অভিযোগে অভিযুক্ত সে। স্থানীয় মহিলাদের তাঁর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফুঁসছেন। অথচ একাধিক অভিযোগে অভিযুক্ত তৃণমূল ব্লক সভাপতি শিবু হাজরা নাকি ‘ফেরার’। তাঁর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। অথচ গোপন ডেরা থেকে বুধবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি তৃণমূল নেতা। সন্দেশখালিতে অশান্তির দায় এড়িয়ে বিজেপি এবং সিপিএমের বিরুদ্ধে আঙুল তুললেন শাহজাহান ঘনিষ্ঠ শিবু।

সপ্তাহখানেক ধরে ফুঁসছে সন্দেশখালি। খামারে আগুন, মহিলাদের বিক্ষোভে উত্তপ্ত একের পর এক গ্রাম। সন্দেশখালির অশান্তি নিয়ে ওঠা একের পর এক অভিযোগ উড়িয়ে দিলেন শিবু। তাঁর দাবি, ‘‘সবই ভিত্তিহীন অভিযোগ। এর নেপথ্যে রয়েছেন সিপিএমের নিরাপদ সর্দার এবং বিজেপির বিকাশ সিংহ। ওঁরা মানুষকে উত্ত্যক্ত করছেন। আমাদের বিরুদ্ধে উসকে দিচ্ছেন। মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে।’’

Advertisement

[আরও পড়ুন: স্ত্রীর কাটা মুন্ডু হাতে গোটা গ্রাম ঘুরল যুবক, প্রেমদিবসে পটাশপুরে হাড়হিম হত্যাকাণ্ড]

সন্দেশখালির স্থানীয় মহিলারা একাধিকবার নিরাপত্তাহীন বলে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। শিবুর বিরুদ্ধে মহিলাদের উপর অত্যাচারের অভিযোগও রয়েছে। অবশ্য সেসব অভিযোগ উড়িয়ে দেন শিবু। তাঁর দাবি, “আমি কখনওই কাউকে রাতে ডাকিনি। কেন ডাকতে যাব? দলের মিটিং থাকলে খবর দেওয়া হত। সেখানে থাকার জন্য কাউকে জোর করা হয়নি কখনও।” তিনি আরও বলেন, “মানুষের কাজ করি। তৃণমূলের আমলে গ্রামের মহিলারা অনেক বেশি সুরক্ষিত।”

Advertisement

অশান্তির মাঝে সম্প্রতি শিবুর খামারে আগুন লাগিয়ে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় মহিলারা। তাঁর বিরুদ্ধে গ্রামের মহিলাদের কোনও অভিযোগ নেই বলেই অবশ্য দাবি শিবুর। তিনি দাবি করেন, “১০০ দিনের কাজের বকেয়ার প্রতিবাদে গ্রামবাসীরা বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। সেখানেই সিপিএম এবং বিজেপি ষড়যন্ত্র করে এলাকায় বিশৃঙ্খলা তৈরি করে। সাময়িকভাবে বিজেপি এবং সিপিএম ষড়যন্ত্রে সফল হলেও, ওরা কোনওদিনই সন্দেশখালির রাজনৈতিক জমি ফিরে পাবে না। এলাকার মানুষ তৃণমূলের সঙ্গে ছিলেন এবং আগামিদিনেও তৃণমূলের সঙ্গেই থাকবে।”

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারি শেখ শাহজাহানের বাড়িতে তল্লাশি করতে গিয়ে জখম হন ইডি আধিকারিকরা। তার পর থেকেই নিখোঁজ শাহজাহান। বার বার তলবেও সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দেননি। তাঁর খোঁজও পাচ্ছেন না তদন্তকারীরা। শাহজাহান ‘ঘনিষ্ঠ’ শিবুকেও খুঁজতে গিয়ে নাকি কালঘাম ছুটছে তদন্তকারীদের। অথচ সাসপেন্ডেড তৃণমূল নেতা উত্তম সর্দারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে কি শিবুকে ইচ্ছাকৃতভাবে আড়াল করা হচ্ছে, ওয়াকিবহাল মহলে উঠছে প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন: আচমকা কলকাতায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী, কারণ ঘিরে জল্পনা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ