৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

চন্দ্রজিৎ মজুমদার, কান্দি: এবার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কবলে এক স্কুল পড়ুয়া। কংগ্রেস নেতাকে না পেয়ে তাঁর ছেলে ছেলেকে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের কান্দি থানার হিজলে। যদিও বরাত জোরে প্রাণে বেঁচে গিয়েছে ওই ছাত্র। তবে গুলিতে গুরুতর জখম হয়েছে ছাত্রের ডান পা। বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কান্দি মহকুমা হাসপাতালে ভরতি সে।

[আরও পড়ুন:‘নাগরিক না হলে দেশ ছেড়ে চলে যাওয়া উচিত’, বিস্ফোরক দ্বারকার শংকরাচার্য]

লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই তৃণমূলে আশ্রিত দুষ্কৃতীরা কংগ্রেস নেতা খান বাহাদুর শেখকে প্রায়ই হুমকি দিত কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জন্য। কিন্তু তাতে রাজি হননি হিজল গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন সদস্য খান বাহাদুর। গত দু’দিন ধরে খান বাহাদুরকে খুনের হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এলাকায় বোমাবাজিরও অভিযোগ ওঠে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। শনিবার সকালে খান বাহাদুরকে না পেয়ে তাঁর ছেলে ওসমান শেখকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। গুলি লাগে কিশোরে ডান পায়ে। টের পেয়ে এলাকার লোকজন ছুটে যেতেই দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় ওই কিশোর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

খান বাহাদুর শেখ জানিয়েছেন, “আমাকে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তৃণমূলে যোগ দেওয়ার জন্য চাপ দিচ্ছিল। কিন্তু আমি ওদের গুরুত্ব দেইনি। এই নিয়ে গত দু’দিন ধরে আমার বাড়ির আশেপাশে ওরা বোমাবাজি করছিল। শনিবার আমার ছেলেকে গুলি করে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। আমার ছেলে কোনওভাবেই রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নয়।” অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছেন কংগ্রেসের বিধায়ক শফিউল আলম খান। প্রয়োজনে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকিও দেন তিনি। যদিও এপ্রসঙ্গে কান্দির ব্লক তৃণমূল সভাপতি পার্থ প্রতিম সরকার জানিয়েছেন, “এই ঘটনায় তৃণমূল কোনওভাবেই যুক্ত নয়। জমি জায়গা সংক্রান্ত বিবাদের জেরে এই ঘটনা। তদন্তে সবকিছু প্রকাশ্যে আসবে।”

[আরও পড়ুন: সমুদ্র সৈকত থেকে উদ্ধার দিঘায় নিখোঁজ শিশুর দেহ, শোকস্তব্ধ পরিবার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং