BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জে তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার ছেলেকে গুলি, কারণ নিয়ে জারি ধোঁয়াশা

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 24, 2019 11:19 am|    Updated: September 24, 2019 11:31 am

Shoot out at South 24 Pargana's Jibantala, injured a person

ছবি: প্রতীকী

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: দুষ্কৃতীদের গুলিতে গুরুতর জখম তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার ছেলে। গভীর রাতে গুলি চলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলার কালিকাতলা। ঠিক কী কারণে তাঁর উপর হামলা করা হল, তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা জারি রয়েছে। জখম ওই যুবককে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: এক প্রকল্পের দু’বার উদ্বোধন, বর্ধমানের রেল উড়ালপুল নিয়ে ফের কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত]

দক্ষিণ ২৪ পরগনার জীবনতলার কালিকাতলার তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যার ছেলে ইসমাইল শেখ প্রতিদিন বেশ রাতেই বাড়ি ফেরেন। সোমবার রাতেও প্রায় একই সময়ে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। অভিযোগ, বাইকে চড়ে আসার সময় দু’জন তাঁকে ধাওয়া করে। বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে পথ আটকায় তারা। এরপরই গুলি চালাতে থাকে ওই দুষ্কৃতীরা। ইসমাইলের বুকে গুলি লাগে। রক্তাক্ত অবস্থায় বাইক থেকে রাস্তায় পড়ে যান তিনি। আর্তনাদ এবং গুলির শব্দ ততক্ষণে কানে পৌঁছায় প্রতিবেশীদের। তাঁরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখেন রাস্তায় শুয়ে যন্ত্রণায় ছটফট করছেন ইসমাইল। তবে পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে ওই দুই দুষ্কৃতী ঘটনাস্থল ছাড়ে। প্রতিবেশীরাই তাঁকে উদ্ধার করেন। প্রথমে স্থানীয় এক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ওই যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে রাতে এসএসকেএম হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। সেই মতো বর্তমানে কলকাতার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই যুবক। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ইসমাইল শেখের অবস্থা বর্তমানে স্থিতিশীল।

[আরও পড়ুন: তৃণমূল নেতার বাড়ির কাছেই উদ্ধার লক্ষাধিক মূল্যের বাতিল নোট, চাঞ্চল্য বাগনানে]

কে বা কারা ইসমাইলের উপর হামলা চালাল, তা নিয়ে তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। ওই যুবকের মা পঞ্চায়েত সদস্যা হওয়ায় অনেকেরই অনুমান রাজনৈতিক মতবিরোধের জেরে এই ঘটনা ঘটেছে। আবার কারও দাবি, রাজনীতি নয়, ইসমাইলকে লক্ষ্য করে গুলি চালানোর নেপথ্যে রয়েছে ব্যক্তিগত কারণ। কী কারণে আদৌ ওই যুবকের উপর হামলা চলল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে