BREAKING NEWS

১৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  শুক্রবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 11, 2019 3:43 pm|    Updated: August 11, 2019 4:06 pm

An Images

চন্দ্রজিৎ মজুমদার, কান্দি: বাড়ির ১০০ মিটারের ব্যবধানে এবার গুলিবিদ্ধ তৃণমূলের অঞ্চল কমিটির সভাপতি। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের খড়গ্রাম এলাকায়। জানা গিয়েছে, পেটে গুলি লেগে গুরুতর জখম ওই তৃণমূল নেতা বর্তমানে কলকাতার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ইতিমধ্যেই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বাকিদের খোঁজে চলছে তল্লাশি।

[আরও পড়ুন: 8 মাস পর কোমা থেকে জাগাল রাগসংগীত, মিউজিক থেরাপিতে সুস্থতার পথে মালদহের মহিলা]

জানা গিয়েছে, মইনুল শেখ নামে ওই ব্যক্তি তৃণমূলের অঞ্চল কমিটির সভাপতি। শনিবার রাতে জমিতে জল দিয়ে বালিয়াহাট এলাকায় ফিরছিলেন তিনি। সেই সময় বালিয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের কাছে তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। গুলি পেটে লাগার ফলে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি। চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে মইনুলকে উদ্ধার করে প্রথমে কান্দি মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ওই তৃণমূল নেতাকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখান থেকেও রেফার করা হয় কলকাতায়৷ বর্তমানে কলকাতার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি।

হামলা প্রসঙ্গে কান্দি মহকুমার তৃণমূল সভাপতি গৌতম রায় বলেন, “মইনুল এলাকায় জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। সেই কারণেই তাঁকে খুনের ছক কষে কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। আমরা গোটা বিষয়টি ইতিমধ্যেই খড়গ্রাম থানায় জানিয়েছি। শনিবার রাতেই তদন্তে নেমে জাকির শেখ নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷” রবিবার তাকে আদালতে তোলা হলে তাকে ৭ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: মানুষের অভিযোগ শুনলেন না বিধায়ক চিরঞ্জিৎ! ‘দিদিকে বলো’র প্রচারে ক্ষোভ বারাসতে]

যদিও তৃণমূলের অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন কান্দির কংগ্রেস নেতৃত্ব। তাঁদের তরফে স্পষ্টভাবে জানানো হয়েছে, কংগ্রেস কোনওভাবেই এহেন ঘটনার সঙ্গে জড়িত নয়। গোটা ঘটনাই তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্বের ফল। কংগ্রেসের নামে অপপ্রচার করছে শাসক শিবির। পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ধৃতকে জেরা করা হচ্ছে। তার সূত্র ধরেই বাকিদের হদিশ মিলতে পারে বলে আশাবাদী তদন্তকারীরা।

An Images
An Images
An Images An Images