BREAKING NEWS

১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

একুশের ভোটে বারাকপুরের লড়াই থেকে সরলেন শীলভদ্র দত্ত, কারণ নিয়ে তুমুল জল্পনা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 3, 2020 10:10 am|    Updated: October 3, 2020 2:00 pm

An Images

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাকপুর: আর বারাকপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়বেন না তৃণমূল বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত (Silbhadra Dutta)। সম্প্রতি নিজের বিধানসভা এলাকার এক অনুষ্ঠানে একথা তিনি স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছেন। জানিয়ে দিয়েছেন, একুশের ভোটে এই কেন্দ্রে নতুন প্রার্থী আসবেন। এই ঘোষণার পর একদা মুকুল রায়ের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ তৃণমূলের দীর্ঘদিনের নেতার দলবদলের জল্পনাও উসকে উঠেছে। তবে সেসব নিয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন শীলভদ্র দত্ত।

মাস খানেক আগেই ফেসবুকে একটি পোস্ট করে বারাকপুরের (Barrackpore) তৃণমূল বিধায়ক লিখেছিলেন – “দমবন্ধ হয়ে আসছে। মন চাইছে মুক্ত আকাশে মুক্তি।” এরপরই জল্পনা উসকে উঠেছিল তাঁর দলবদল নিয়ে। দলের একাংশের মতে, সম্প্রতি ব্লক স্তরের রদবদল নিয়ে একপ্রস্ত বচসা হয়েছিল শীলভদ্রবাবুর। তারপরই তাঁর ওই পোস্টে স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল, তবে কি দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছে নাকি অশান্তির কারণে দল ছাড়ছেন বিধায়ক? যদিও সেসব উড়িয়ে শীলভদ্রবাবু নিজেই আরেকটি পোস্টে জানিয়েছিলেন যে তৃণমূলেই রয়েছেন।

[আরও পড়ুন: ‘সিঙ্গুরে ভুল বোঝানো হয়েছিল কৃষকদের’, তৃণমূলের কৃষি আইন বিরোধিতা নিয়ে বেফাঁস সৌমিত্র খাঁ]

তবে দলের সঙ্গে দূরত্ব যে বাড়ছে, তা আরও একবার তিনি স্পষ্ট করলেন তাঁর সাম্প্রতিক বক্তব্যে। জানিয়েই দিলেন, আগামী বিধানসভায় বারাকপুর কেন্দ্র থেকে তিনি আর লড়বেন না। লড়াইয়ে নামবেন তৃণমূলের অন্য কোনও প্রার্থী। যদিও বেস কয়েকদিন ধরে তিনি অসুস্থ। তা সত্ত্বেও ভিন্নতর সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। সূত্রের খবর ঘনিষ্ঠ মহলে তিনি জানিয়েছেন যে ১০ বছর বিধায়ক থাকার সূত্রে তিনি যে কাজ করতে পারেননি, তা নিতান্তই তাঁর নিজের অপদার্থতা। এহেন মন্তব্য থেকেই অনেকে মনে করছেন, দলের প্রতি অভিমানবশত দূরত্ব বাড়াচ্ছেন। দলে তেমন সক্রিয় থাকতে নারাজ তিনি। অবশ্য তৃণমূলের আরেক পক্ষ শীলভদ্রবাবুর এই মন্তব্যে অন্য ইঙ্গিতও খুঁজে পাচ্ছে। তাহলে কি তিনি দলবদল করবেন? তাই কি বলছেন যে বারাকপুর কেন্দ্রের লড়াইয়ে দেখা যাবে তৃণমূলের নতুন কোনও মুখ? 

[আরও পড়ুন: সম্পত্তির লোভে বাবাকে খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দিল ছেলে, বিজেপি নেতার কুকীর্তিতে শোরগোল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement